kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

জেএসসি প্রস্তুতি

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

জেসমিন আখতার রুপা, প্রভাষক (আইসিটি), শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজ, মিরপুর-১৪, ঢাকা

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

অধ্যায়ভিত্তিক পাঠ প্রস্তুতি

চতুর্থ অধ্যায়

রচনামূলক প্রশ্ন

৩। স্প্রেডশিটের মাধ্যমে করা যায়

এমন দুটি কাজের বর্ণনা দাও।

উত্তর : স্প্রেডশিট প্রগ্রামে ওয়ার্কশিট বা ওয়ার্কবুকের সাহায্যে অনেক ধরনের গাণিতিক কাজ করা যায়। যেমন—যোগ, বিয়োগ, গুণ, ভাগ, গড় ইত্যাদি।

যোগ করা : এক্সেলে দুই ভাগে যোগ করা যায়।

যথা— (১) স্বয়ংক্রিয়ভাবে

    (২) ম্যানুয়ালি

(১) স্বয়ংক্রিয়ভাবে যোগ : স্বয়ংক্রিয়ভাবে যোগ করতে হলে সেলগুলোকে রেঞ্জ করে ফলাফল সেলে কার্সর নিয়ে জ্ঝ চিহ্নে ক্লিক করতে হয়।

যেমন :  

অথবা, ফাংশন ব্যবহার করে যোগের কাজ করা যায়। স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফাংশন ব্যবহার করে যোগ নির্ণয় করা যায়। স্প্রেডশিট প্রগ্রামের ওয়ার্কশিট বা ওয়ার্কবুকে রো বা কলাম অনুযায়ী সেলের ভেতরের অনেকগুলো মান বা সংখ্যার যোগ নির্ণয় করার জন্য SDM ফাংশন ব্যবহার করা হয়।

গঠন : SUM (1st Cell address : Last cell address)

যেমন :

২। ম্যানুয়ালি যোগ : ম্যানুয়ালি বা ফর্মুলা ব্যবহার করে যোগ করতে হলে ফলাফল সেলে “=” চিহ্ন দিয়ে সূত্র লিখতে হয়।

যেমন :  

বিয়োগ করা : এক্সেলের ওয়ার্কশিটে বিয়োগ করার পদ্ধতিও যোগ করার পদ্ধতির মতো। তবে স্বয়ংক্রিয় বিয়োগ করার কোনো ব্যবস্থা নেই। ফলাফল সেলে সূত্র বসিয়ে বিয়োগের কাজ করতে হয়।

যেমন :  

গুণ করা : এক্সেলে সূত্র ব্যবহার করে গাণিতিক গুণের কাজ করা যায়। ফাংশন বা সূত্রের মধ্যে সমান চিহ্ন দিয়ে এবং সেল অ্যাড্রেসের মধ্যে “*” চিহ্ন দিয়ে গাণিতিক গুণের কাজ করা হয়।

যেমন :

ভাগ করা : এক্সেলে সূত্র ব্যবহার করে গাণিতিক ভাগের কাজ করা যায়। ফাংশন বা সূত্রের মধ্যে সমান চিহ্ন দিয়ে এবং সেল অ্যাড্রেসের মধ্যে “/” চিহ্ন দিয়ে গাণিতিক ভাগের কাজ করা হয়।

যেমন :

 

বহু নির্বাচনী প্রশ্ন

১। গ্রাফ তৈরি করার পর কোনো ডাটা পরিবর্তন করলে কী ঘটে?

    ক) গ্রাফ নিজে পরিবর্তন হয়

    খ) গ্রাফ পরিবর্তন হয় না

    গ) গ্রাফ মুছে যায়   

    ঘ) গ্রাফ পরিবর্তন করতে হয়

২। কুইক এক্সেস টুলবার নামকরণের কারণ কী?

    ক) সামনে থাকে বলে 

    খ) সচরাচর পাওয়া যায় বলে

    গ) দ্রুত কাজ করা যায় বলে

    ঘ) বেশি ব্যবহৃত হয় বলে

৩। এমএস এক্সেলের একটি ওয়ার্কশিটে কতগুলো কলাম থাকে?

    ক) ২৫৬         খ) ২৬৫

    গ) ২৭৫         ঘ) ২৭৬

৪। ওয়ার্কশিটের ক্ষুদ্রতম ঘরকে কী বলে?

    ক) সেল          খ) রেঞ্জ

    গ) রো           ঘ) কলাম

৫। কম্পিউটারের ডেস্কটপ পরিবেশকে আর কী বলা হয়?

    ক) প্রগ্রাম          খ) হোম পেজ

    গ) ডাটার স্থান      ঘ) মনিটর

   

উত্তর : ১. ক ২. ঘ ৩. ক ৪. ক ৫. খ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা