kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণি

ফিন্যান্স, ব্যাংকিং ও বীমা প্রথম পত্র

মো. রবিউল আউয়াল, প্রভাষক, ফিন্যান্স বিভাগ, নটর ডেম কলেজ, ঢাকা

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



ফিন্যান্স, ব্যাংকিং ও বীমা প্রথম পত্র

দ্বিতীয় অধ্যায়

আর্থিক বাজারের আইনগত দিকগুলো

সৃজনশীল প্রশ্ন

জীবন লিমিটেড একটি বহুমুখী বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান। সম্প্রতি তারা তাদের ব্যবসায়কে আরো বৈচিত্র্যকরণের লক্ষ্যে নতুন একটি সিমেন্ট ফ্যাক্টরি করার কথা বিবেচনা করছে। ফ্যাক্টরিটি করার জন্য কম্পানির প্রায় ৫০ কোটি টাকা প্রয়োজন। এ জন্য তারা আর্থিক বাজার থেকে শেয়ার ও বন্ডের মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহের কথা বিবেচনা করছে। অন্যদিকে CORE অটোমোবাইলস অনেক দিন যাবৎ বাংলাদেশে সুনামের সঙ্গে গাড়ির ব্যবসা করে আসছে। বর্তমানে তারা তাদের গাড়ি আমদানির পাশাপাশি জেনারেটর আমদানি করছে। এর জন্য হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে পাঁচ কোটি টাকা পাঠায়। বিষয়টি দুর্নীতি দমন কমিশনের দৃষ্টিগোচর হলে তদন্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তদন্তে প্রতিষ্ঠানটি দোষী সাব্যস্ত হলে শাস্তির সুপারিশ করা হয়।

 

ক) আর্থিক বাজার কী?

খ) BSEC কোন ধরনের সংস্থা? ব্যাখ্যা করো।

গ) উদ্দীপকে বর্ণিত জীবন লিমিটেড কোন আর্থিক বাজার থেকে অর্থ সংগ্রহের কথা বিবেচনা করেছে? ব্যাখ্যা করো।

ঘ) বর্তমানে প্রচলিত আইনে প্রতিষ্ঠানটি কি শাস্তির আওতায় পড়বে? বিশ্লেষণ করো।

 

সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর

ক) যে বাজারে স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদি আর্থিক সম্পদ ক্রয়-বিক্রয় করা হয় তাকে আর্থিক বাজার বলে।

খ) BSEC (Bangladesh Securities and Exchange Commission) বাংলাদেশের শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা। BSEC বাংলাদেশের দুটি শেয়ারবাজারের যেকোনো ধরনের নিয়মবহির্ভূত লেনদেন ও জালিয়াতি বন্ধে ভূমিকা রাখে। প্রয়োজনে BSEC ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিপক্ষে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়। আর্থিক বাজার বিশ্লেষণে, মূলধন বাজার নিয়ন্ত্রণে সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন। সিকিউরিটিজ বাজার নিয়ন্ত্রণে বিভিন্ন আইন প্রণয়নে সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করে বিএসইসির চেয়ারম্যান।

গ) উদ্দীপকে বর্ণিত জীবন লিমিটেড পুঁজিবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহের কথা বিবেচনা করেছে।

পুঁজিবাজার বা মূলধন বাজার হলো আর্থিক বাজারের সেই অংশ, যেখানে দীর্ঘ মেয়াদে অর্থ বা আর্থিক সম্পদের লেনদেন হয়। অর্থাৎ মূলধন বাজার হলো এমন একটি বাজার, যার মাধ্যমে দীর্ঘমেয়াদি তহবিলের চাহিদাকারী ও জোগানদাতার মধ্যে লেনদেন সম্পাদিত হয়। এই বাজারের হাতিয়ারগুলো হলো—শেয়ার, বন্ড, ডিবেঞ্চার ইত্যাদি, যাতে বিনিয়োগকারীরা দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগ করে এবং অর্থের সংগ্রাহকরা দীর্ঘমেয়াদি অর্থ সংগ্রহ করে শেয়ার, বন্ড ইত্যাদি ইস্যুর মাধ্যমে।

উদ্দীপকে জীবন লিমিটেডের ফ্যাক্টরি করার জন্য কম্পানির প্রায় ৫০ কোটি টাকা প্রয়োজন। এ জন্য তারা আর্থিক বাজার থেকে শেয়ার ও বন্ডের মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহের কথা বিবেচনা করছে। শেয়ার ও বন্ড হলো পুঁজিবাজারের উপাদান, যেখান থেকে জীবন লিমিটেডের ফ্যাক্টরি করার জন্য কম্পানির প্রায় ৫০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। সুতরাং বলা যায় যে উদ্দীপকে বর্ণিত  জীবন লিমিটেড পুঁজিবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহের কথা বিবেচনা করেছে।

ঘ) বর্তমানে প্রচলিত আইনে প্রতিষ্ঠানটি শাস্তির আওতায় পড়বে। অবৈধ উপায়ে অর্থ স্থানান্তরের মাধ্যম হলো হুন্ডি। এসব অবৈধ উপায়ে অর্থ স্থানান্তরকে প্রতিহত করার লক্ষ্যে প্রায় সব দেশেই ‘মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন’ রয়েছে।

উদ্দীপকে CORE অটোমোবাইলস হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে পাঁচ কোটি টাকা পাঠায়। অর্থাৎ অবৈধ উপায়ে বিদেশে অর্থ স্থানান্তর করে তারা ‘মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন’ লঙ্ঘন করেছে। বিষয়টি দুর্নীতি দমন কমিশনের দৃষ্টিগোচর হলে তদন্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তদন্তে প্রতিষ্ঠানটি দোষী সাব্যস্ত হয়। তারা ‘মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১২’-এর আওতায় দোষী প্রমাণিত হওয়ায় শাস্তি পাবে। এ ক্ষেত্রে দায়ী কর্মকর্তাদের ন্যূনতম ৪ বছর থেকে অনধিক ১২ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে এবং অর্থ দণ্ডের পরিমাণ হবে বিদেশে পাঠানো অর্থের দ্বিগুণ অর্থাৎ ১০ কোটি টাকা। সুতরাং, প্রচলিত আইনে প্রতিষ্ঠানটির দায়ী কর্মকর্তারা কারাদণ্ডের পাশাপাশি ১০ কোটি টাকা অর্থ দণ্ডে দণ্ডিত হতে পারেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা