kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

এইচএসসি প্রস্তুতি

ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা দ্বিতীয় পত্র

পপেল চন্দ্র সাহা, সহকারী অধ্যাপক, আবদুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজ, নরসিংদী

২৬ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৬ মিনিটে



ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা দ্বিতীয় পত্র

অধ্যায়ভিত্তিক পাঠ প্রস্তুতি

দশম অধ্যায় : নিয়ন্ত্রণ

১।        নিয়ন্ত্রণের গুরুত্বপূর্ণ কৌশল কোনটি?

            ক) বাজেট         খ) কর্মী মনোবল

            গ) সফটওয়্যার ঘ) কর্মী সন্তুষ্টি

২।         ব্যবস্থাপক কিভাবে প্রতিষ্ঠানের কাজের অগ্রগতি পরিমাপ করেন?

            ক) আদর্শমান প্রতিষ্ঠা করে

            খ) আদর্শমানের সঙ্গে তুলনা করে

            গ) বিচ্যুতি নির্ণয় করে

            ঘ) সংশোধনমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে

৩।        নিয়ন্ত্রণ প্রক্রিয়ার অন্তর্ভুক্ত পদক্ষেপ হলো—

            i. আদর্শ মান প্রতিষ্ঠা

            ii. কার্যফল পরিমাপ

            iii. বিচ্যুতি নিরূপণ

            নিচের কোনটি সঠিক?

            ক) i ও ii                       খ) i ও iii

            গ) ii ও iii          ঘ) i, ii ও iii

৪।        ব্যবস্থাপনায় নিয়ন্ত্রণ গুরুত্বপূর্ণ কেন?

            ক) কাজের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা

            খ) পরিকল্পনার বাস্তবায়ন নিশ্চিত করা

            গ) কর্মীদের উৎসাহ-উদ্দীপনা বাড়ানো

            ঘ) প্রতিষ্ঠানের উত্তম শিল্প-সম্পর্ক সৃষ্টি করা

৫।        SWOT-এর পূর্ণরূপ কী?

            ক) Strength, Weekness, offer & Tie

            খ) Strength, Weekness, Opportunity & Threat

            গ) Softness, Weekness, Opportunity & Threat

            ঘ) Strength, Weakness, Opportunity & Threat

            উদ্দীপকটি পড়ে ৬ ও ৭ নম্বর প্রশ্নের উত্তর দাও :

            রুহুল সাহেব তাঁর কলম তৈরির কারখানায় প্রতি ঘণ্টায় কর্মীদের ১০টি করে কলম তৈরি করার নির্দেশ প্রদান করেন। কিন্তু দিনের শেষে দেখা গেল কর্মীরা ঘণ্টায় ৭টি কলম তৈরি করেছে।

৬।        উদ্দীপকে রুহুল সাহেব ঘণ্টায় ১০টি কলম তৈরি করা নিম্নের কোন কাজটির সঙ্গে সম্পর্কিত?

            ক) আদর্শমান    খ) তুলনাকরণ

            গ) বিচ্যুতি        ঘ) সময়

৭।        উদ্দীপকের রুহুল সাহেব নিম্নের কোন কাজটি সম্পাদন করতে পারেন?

            ক) বেতন বৃদ্ধি খ) বিচ্যুতি নির্ণয়

            গ) সংশোধনমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ

৮।       ব্যবস্থাপনা প্রক্রিয়ার কোনটি মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ?

            ক) পরিকল্পনা ও নিয়ন্ত্রণ

            খ) সংগঠন ও কর্মসংস্থান

            গ) নির্দেশনা ও নেতৃত্বদান ঘ) পরিকল্পনা ও সংগঠন

৯।        জাহিদ সাহেব তাঁর কারখানায় প্রত্যেক শ্রমিক প্রতিদিন কি পরিমাণ পণ্য উৎপাদন করবে তা ঠিক করে দিয়েছেন। এর আলোকে একটি সাপ্তাহিক উৎপাদনের পরিমাণও নির্দিষ্ট করা হয়েছে। এতে তাঁর যে সুবিধা হচ্ছে—

            i. শ্রমিকদের কাজ নিয়ন্ত্রণ সহজ হয়েছে

            ii. প্রতিষ্ঠানে ফাঁকিবাজির প্রবণতা দূর হয়েছে

            iii. শ্রমিকদের মধ্যকার আন্তরিকতা বৃদ্ধি পেয়েছ

            নিচের কোনটি সঠিক?

            ক) i ও ii                       খ) i ও iii

            গ) ii ও iii          ঘ) i, ii ও iii

১০।      নেটওয়ার্কের সংকটময় পথ চিহ্নিত করতে কী ব্যবহৃত হয়?

            ক) CPM           খ) BEP

            গ) PERT          ঘ) IRR

            উত্তর : . . . . . . . . . ১০.

দশম অধ্যায় : নিয়ন্ত্রণ

১।        শ্যাম বাবু একটি পোশাক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী। নিম্নের লেখচিত্রের সাহায্যে তিনি প্রতিষ্ঠানের বার্ষিক পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা বাস্তবায়নের নিমিত্তে তিনি কর্মীদের জন্য বোনাস, লভ্যাংশসহ অনার বোর্ডে শ্রেষ্ঠ কর্মীর নাম লিখে রাখার ঘোষণা দেন। ফলে দেখা যায়, কর্মীরা নির্দিষ্ট সময়ে টার্গেটের অতিরিক্ত উৎপাদন করে প্রতিষ্ঠানের ও নিজেদের লাভ নিশ্চিত করে।

            ক) নিয়ন্ত্রণ প্রক্রিয়ার প্রথম পদক্ষেপ কী?             ১

            খ) ব্যবস্থাপনায় নিয়ন্ত্রণ অপরিহার্য কেন? ব্যাখ্যা করো।             ২

            গ) চিত্রে TR রেখা ও TC রেখা যে বিন্দুতে ছেদ করল তা ব্যাখ্যা করো।    ৩

            ঘ) শ্যাম বাবুর প্রতিষ্ঠান ও কর্মীদের লাভ নিশ্চিত হওয়ার পেছনে প্রধান কারণ কোনটি? বিশ্লেষণ করো।

উত্তর :

            ক) নিয়ন্ত্রণ প্রক্রিয়ার প্রথম পদক্ষেপ হলো আদর্শ মান নির্ধারণ।

            খ) নিয়ন্ত্রণ হলো পূর্বনির্ধারিত আদর্শ মানের সঙ্গে প্রকৃত কার্যফল তুলনা করে নির্ণীত বিচ্যুতি সংশোধনের কার্যব্যবস্থা বিশেষ।

            ব্যবস্থাপনা প্রক্রিয়া পরিকল্পনা দিয়ে শুরু হয় ও নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে শেষ হয়।

            পরিকল্পনার আলোকে বাস্তবায়ন কার্য পরিচালিত হলেও প্রকৃত ফল সব সময় আদর্শমান অনুযায়ী হয় না। কেন হয়নি, তা যদি দেখা না হয়, সংশোধনমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হয়, তবে ব্যবস্থাপনার কখনই তার লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব নয়। যে কারণে ব্যবস্থাপনায় নিয়ন্ত্রণ অপরিহার্য।

            গ) চিত্রে TR রেখা ও TC রেখা যে বিন্দুতে ছেদ করেছে সেটি হচ্ছে BEP বা Break Even point বা সমচ্ছেদ বিন্দু।

            সমচ্ছেদ বিন্দু হচ্ছে এমন এক বিন্দু, যেখানে মোট আয় ও ব্যয় সমান অর্থাৎ যে বিন্দু পর্যন্ত উৎপাদন করলে প্রতিষ্ঠানের কোনো লাভ হবে না, আবার কোনো লোকসানও হবে না অর্থাৎ এই বিন্দুতে উৎপাদন করলে Total Revenue = Total Cost হবে। এই বিন্দুর বেশি উৎপাদন করলে প্রতিষ্ঠানের লাভ হবে, আবার এই বিন্দুর কম উৎপাদন করলে প্রতিষ্ঠানের লোকসান হবে।

            উদ্দীপকে উল্লিখিত লেখচিত্রে দেখা যায়, TR রেখা ও TC রেখা পরস্পরকে P বিন্দুতে ছেদ করেছে। অর্থাৎ ওই বিন্দু পর্যন্ত উৎপাদন করলে যত খরচ হবে ওই পরিমাণ বিক্রি করলে ঠিক সে পরিমাণই আয় হবে। অর্থাৎ P বিন্দুতে আয়-ব্যয় সমান হবে। এ জন্য নিঃসন্দেহে বলা যায়, চিত্রে TR রেখা ও TC রেখা P বিন্দু অর্থাৎ সমচ্ছেদ বিন্দুকে ছেদ করল।

            ঘ) শ্যাম বাবুর প্রতিষ্ঠান ও কর্মীদের লাভ নিশ্চিত হওয়ার পেছনে প্রধান কারণ হলো প্রেষণা।

            মানুষের চাহিদা বা অভাববোধ থেকে মনের ভেতরে বা বাইরে যে চাপ সৃষ্টি হয় এবং তার ফলে কোনো লক্ষ্য অর্জনের জন্য মনে যে তাড়না, রোদনা বা উদ্যম সৃষ্টি হয় তাকে প্রেষণা বলে।

            প্রেষণা মানুষের চাহিদা পূরণ করে এবং কাজের প্রতি আগ্রহী করে তোলে। প্রেষিত কর্মী তার ওপর অর্পিত দায়িত্ব সর্বোচ্চ চেষ্টার মাধ্যমে সম্পাদন করে, যা লক্ষ্য অর্জনে সহায়ক। আব্রাহাম মাসলোর মতে, প্রত্যেক মানুষের পাঁচ ধরনের চাহিদা আছে, যার একটি পূরণ হলে আরেকটি সৃষ্টি হয়। উদ্দীপকে দেখা যায়, শ্যাম বাবু তাঁর কর্মীদের উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য বোনাস, লভ্যাংশসহ প্রতিষ্ঠানের অনার বোর্ডে শ্রেষ্ঠ কর্মীর নাম লিখে রাখার ঘোষণা দেন; যেটির সঙ্গে পাঠ্যপুস্তকের আর্থিক ও অনার্থিক প্রেষণার মিল রয়েছে।

            অতএব বলা যায়, প্রতিষ্ঠানের লাভ হওয়ার পেছনে প্রেষণার ভূমিকা রয়েছে। উদ্দীপকে আরো দেখা যায়, লেখচিত্র অনুযায়ী BEP বা সমচ্ছেদ বিন্দুর অতিরিক্ত উৎপাদন করে লাভ করতে পারে। আবার নিজেদের বোনাস ও লভ্যাংশ বৃদ্ধি পাবে এটিও তাদের কাজের প্রতি অধিক মনোনিবেশ করেছে। দুটির মধ্যে বিশ্লেষণ করে বলা যায়, কর্মীদের নিজেদের প্রতি আর্থিক লাভ ও অনার বোর্ডে শ্রেষ্ঠ কর্মীর নাম ওঠার সম্ভাবনার কারণেই তাদের কাজের প্রতি আগ্রহ অধিক বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই নিঃসন্দেহে বলা যায়, শ্যাম বাবুর প্রতিষ্ঠান ও কর্মীদের লাভ নিশ্চিত হওয়ার পেছনের প্রধান কারণ প্রেষণা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা