kalerkantho

সোমবার । ৩ মাঘ ১৪২৮। ১৭ জানুয়ারি ২০২২। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

গণপরিবহনে শৃঙ্খলা আনতে হবে

বাস রুট রেশনালাইজেশন

৩০ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রাজধানী ঢাকার গণপরিবহনে কোনো শৃঙ্খলা নেই। এখানে বাসগুলো পরস্পরের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে চলে। একটি বাস আরেকটি বাসকে ধাক্কা দেয়। এতে প্রাণহানির ঘটনাও ঘটেছে। রাজধানীর গণপরিবহনে শৃঙ্খলা আনতে ২০০৪ সালে ঢাকার জন্য করা ২০ বছরের পরিবহন পরিকল্পনায় ‘বাস রুট রেশনালাইজেশন’ বা বাস রুট ফ্র্যাঞ্চাইজি চালু করার পরামর্শ দেওয়া হয়। বিশেষ এই ব্যবস্থার মূল লক্ষ্য হচ্ছে লক্কড়ঝক্কড় বাস তুলে নেওয়া। ২০১৬ সালের শুরুতে একটি উদ্যোগ নিয়েছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) তৎকালীন মেয়র আনিসুল হক। তখন পরিকল্পনা ছিল, দেড় বছরের মধ্যে ছয়টি কম্পানির অধীনে ছয় রঙের নতুন তিন হাজার বাস নামানো হবে। তাঁর মৃত্যুর পর উদ্যোগটি থেমে যায়। পরে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন উদ্যোগটি নতুন করে এগিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। ২০১৮ সালে স্থানীয় সরকার বিভাগের এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এই কমিটির আহ্বায়ক করা হয় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়রকে। ২০১৯ সালে অন্য একটি প্রজ্ঞাপনে ডিএনসিসির একজন প্রতিনিধিকে অন্তর্ভুক্ত করে ১২ সদস্যের কমিটি পুনর্গঠন করা হয়। রাজধানীর গণপরিবহনে শৃঙ্খলা আনা ও যানজট নিরসনে বাস রুট রেশনালাইজেশনের পরীক্ষামূলক যাত্রা শুরুর কথা ছিল আগামী ১ ডিসেম্বর। কিন্তু গত রবিবার রুট রেশনালাইজেশনের ১৯তম সভার পর ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র জানালেন, বাস মালিকরা বাস দেওয়ার কথা বলেও দেননি। এমনকি তাঁরা কথার বরখেলাপ করেছেন। বাস মালিকদের প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের কারণে ১ ডিসেম্বর থেকে ঘাটারচর-কাঁচপুর রুটে নগর পরিবহনের বাস চালু করা যাচ্ছে না। অন্যদিকে অসহযোগিতার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি বলছে, ভুল-বোঝাবুঝি হয়েছে মাত্র।

রাজধানীর গণপরিবহনে শৃঙ্খলা আনতে ফ্র্যাঞ্চাইজির শর্তগুলো ছিল বাস সবুজ হবে, নাম হবে নগর পরিবহন, প্রশিক্ষিত গাড়িচালক থাকবে, যেকোনো বাস অন্য বাসের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে ধাক্কা দেবে না। দুই মেয়রই বলছেন, তাঁরা লক্ষ্য থেকে কোনোভাবেই পিছপা হননি বা সরে আসেননি। একটু সংস্কার করা হয়েছে। শুরুতে বিআরটিসি ৩০টি বাস দেবে বলে নিশ্চিত করেছে। আগামী ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত যেকোনো উদ্যোক্তা এই রুটে বাস দেওয়ার আবেদন করতে পারবেন। দুই মেয়রই বলছেন, তাঁরা কারো কাছে জিম্মি হতে চান না। রাজধানীবাসীকে শৃঙ্খলার সড়ক দিতে চান। আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে বিআরটিএ, ডিএমপি ও সিটি করপোরেশন অভিযানে নামবে। নির্দিষ্ট রুট পারমিট অনুযায়ী বাস চালাতে হবে। এক রুটের বাস অন্য রুটে চালানো যাবে না।

রাজধানীর সড়ক পরিবহনে শৃঙ্খলা আনতে বাস রুট রেশনালাইজেশন কার্যকর হবে, এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

 



সাতদিনের সেরা