kalerkantho

বুধবার । ১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ এপ্রিল ২০২১। ১ রমজান ১৪৪২

দুর্ঘটনা নাকি হত্যাকাণ্ড

সড়কে নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দেশের সড়ক-মহাসড়কে এমন অনেক দুর্ঘটনা ঘটে, যেগুলোকে দুর্ঘটনা না বলে হত্যাকাণ্ডও বলা যায়। সড়ক দুর্ঘটনায় মূল্যবান প্রাণহানিকে কেবলই দুর্ঘটনা বলে চালিয়ে দেওয়ার কোনো কারণও নেই। অনেক দুর্ঘটনাই চালকের ভুলে ঘটে থাকে। অনেক চালক রাত-দিন গাড়ি চালান। অত্যধিক ক্লান্তি এবং গাড়ি চালাতে চালাতে ঘুমিয়ে যাওয়ার কারণেও অনেক দুর্ঘটনা ঘটে। আবার বেপরোয়া গতি, প্রতিযোগিতা করে গাড়ি চালানো, গাড়ি চালাতে চালাতে মোবাইল ফোনে কথা বলাসহ বহু অনিয়ম ঘটে রাস্তায়। যেসব কারণে রাস্তায় মৃত্যুর মিছিল লেগেই আছে। নিরাপদ সড়কের দাবিতে কখনো কখনো আন্দোলন হয়েছে দেশে। কিন্তু নিশ্চিত হয়নি সড়ক নিরাপত্তা। 

গত শুক্রবার সকালে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে দুর্ঘটনায় প্রাণ গেছেন আটজনের। আহত হন অন্তত ২০ জন। একই দিন দেশের আট জেলায় সড়কে প্রাণ ঝরেছে আরো ১৮ জনের। বিভিন্ন পত্রিকা, অনলাইন পোর্টালে প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের ‘সড়ক দুর্ঘটনার বার্ষিক প্রতিবেদন-২০২০’-এ বলা হয়েছে, গত বছর দেশে সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে চার হাজার ৭৩৫টি। এতে প্রাণ হারিয়েছেন পাঁচ হাজার ৪৩১ জন এবং আহত হয়েছেন সাত হাজার ৩৭৯ জন। ওই প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, ২০১৯ সালের চেয়ে ২০২০ সালে সড়ক দুর্ঘটনার হার বেড়েছে ০.৮৯ শতাংশ। আর জীবনহানির হার বেড়েছে ৪.২২ শতাংশ। আহতের হার বেড়েছে ৩.৮৮ শতাংশ। কালের কণ্ঠ’র হিসাবে গত ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে গতকাল পর্যন্ত মোট সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে ১৬টি। এতে নিহত হয়েছেন ৫৬ জন এবং আহত হয়েছেন ১২১ জন।

নানা ব্যবস্থা নেওয়ার পরও সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিদিনই ঘটছে দেশজুড়ে। আমাদের দেশে চালকদের বড় সীমাবদ্ধতা হচ্ছে প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকায় তাঁদের অনেকেই আধুনিক সড়ক নির্দেশনা বুঝতে অক্ষম। ফলে অনেক সময় দুর্ঘটনা ঘটে যায়। গাড়িচালকদের শিক্ষাগত যোগ্যতা অন্তত এসএসসি নির্ধারণ করার আদেশ দিয়েছিলেন আদালত। পাঠ্যপুস্তকে ট্রাফিক আইন ও নিয়ম অন্তর্ভুক্ত করতে বলা হয়েছে। তাতে শিক্ষার্থীরাও ট্রাফিক আইন ও নিয়ম সম্পর্কে জানতে পারবে। আদালতের সেই নির্দেশনা কি মানা হচ্ছে? মালিকরাও সাধারণত চালকের দক্ষতা, কল্যাণ ও শৃঙ্খলার প্রতি উদাসীন।

আমরা কোনো মতেই এমন অনিরাপদ সড়ক চাই না। প্রতিদিনের এই মৃত্যু কোনো অবস্থাতেই কাম্য নয়। যেকোনো মূল্যে সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে হবে। সড়কে নজরদারি জোরদার করতে হবে। দুর্ঘটনা নামের হত্যাকাণ্ড রোধে সরকার দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নেবে—এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

 

মন্তব্য