kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

আবার বেড সংকট

আইসিইউ ব্যবস্থাপনা জোরদার করুন

২৬ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনাভাইরাসের উপদ্রব শুরু হওয়ার পর থেকেই সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, স্বাস্থ্যসেবা ও চিকিৎসার সব ব্যবস্থা প্রস্তুত রাখা হয়েছে। আইসিইউসহ সব ব্যবস্থাই পাকা; কিন্তু দেশের স্বাস্থ্যসেবার কী অবস্থা তা এরই মধ্যে জানা হয়ে গেছে নাগরিকদের। এখন করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ দরজায় করা নাড়ছে, স্বাস্থ্যসেবার ও চিকিৎসার অবস্থা কিন্তু একই আছে। উন্নতি দেখা যাচ্ছে না।

জরুরি করোনা রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা পেতে গিয়ে যে নাকাল অবস্থায় পড়তে হচ্ছে কালের কণ্ঠের এক প্রতিবেদনে সে বিষয়ে বিশদ তথ্য রয়েছে। বলা হয়েছে, ঢাকার হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ বেড মিলছে না। ঢাকার বাইরেও অবস্থা প্রায় একই রকম। একটি বেড পেতে রোগীদের ও স্বজনদের জেরবার অবস্থা। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে কেউ কখনো বা সফল হয়, কেউ হয় না। কারণ প্রয়োজনীয় সংখ্যক বেডের অভাব। অনেকে বাধ্য হয়ে, তা-ও আবার বন্ধু বা ঘনিষ্ঠজনের সহায়তায় বেসরকারি হাসপাতালে মাত্রাতিরিক্ত খরচ সাপেক্ষে একটি আইসিইউ বেড জোগাড় করছেন।

ভুক্তভোগী মানুষের সংখ্যা কম নয়। প্রতিদিন কুর্মিটোলা, কুয়েত মৈত্রী, ঢাকা মেডিক্যাল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মতো বড় বড় সরকারি বা স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে আইসিইউর জন্য মানুষের ভিড়, ছোটাছুটি, হয়রানি লেগেই থাকে। এসব হাসপাতালের কর্তৃপক্ষ নিরুপায় হয়ে রোগীদের ফিরিয়ে দিচ্ছে। অন্যদিকে দু-একটি বেসরকারি হাসপাতাল ছাড়া ভালো মানের বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউ বেডও খালি পাওয়া যাচ্ছে না। বিশেষজ্ঞ ডাক্তার-উপদেষ্টারা বলছেন, পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের উচিত হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ ব্যবস্থাপনা জোরদার করা। নতুন ইউনিট করতে গেলে জনবলের সংকট হতে পারে। সে ক্ষেত্রে পুরনো ব্যবস্থাপনা কিভাবে নতুন করে সচল করা যায় সেদিকে নজর দেওয়া দরকার। নতুন ব্যবস্থাগুলোর জন্য জনবল তৈরিতেও নজর দিতে হবে; নয়তো মানুষের দুর্দশা সামনের দিনে আরো বাড়তে পারে।

সার্বিক পরিস্থিতি হচ্ছে, ঢাকায় আইসিইউ বেডের জন্য হাহাকার চলছে। ঢাকার বড় ১০টি সরকারি হাসপাতালের পাঁচটিতেই ফাঁকা হচ্ছে না আইসিইউ বেড। অন্যগুলোতে খালি মাত্র ১৫ শতাংশ; তা-ও ভাগ্যে জুটছে না সাধারণ রোগীদের। শুধু সরকারি নয়, হাহাকার অবস্থা বেসরকারি হাসপাতালেও। রোগীদের স্বজনদের অভিযোগ, সরকারি হাসপাতালে বেড না থাকায় বেসরকারিতে আইসিইউ বেডের ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ইচ্ছামতো। ঢাকার বাইরে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেও আইসিইউ বেড খালি নেই।

পরিস্থিতি এ রকম থাকলে সামনের দিনগুলোতে রোগীর অবস্থা সঙ্গিন হয়ে পড়বে। আমরা আশা করি, সরকার এ বিষয়ে আন্তরিকভাবে মনোনিবেশ করবে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা