kalerkantho

বুধবার । ১২ কার্তিক ১৪২৭। ২৮ অক্টোবর ২০২০। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

প্রবাসী কর্মীদের ফিরে যাওয়া

কূটনৈতিক তৎপরতায় সাফল্য

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনাভাইরাসের সংক্রমণের পর বিরূপ পরিস্থিতিতে বিশ্ব অর্থনীতিতে যে ধাক্কা লেগেছে তার ঢেউ এসে পড়েছে বাংলাদেশেও। বাংলাদেশে এক বিপর্যয়ের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে প্রবাসী আয়েও। করোনাকালে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশ থেকে দেশে ফিরে আসেন অনেক প্রবাসী কর্মী। সম্প্রতি সৌদিপ্রবাসী কর্মীদের সে দেশে ফেরা নিয়ে দেখা দেয় জটিলতা। অনেকের ইকামার মেয়াদ শেষ হওয়ার পথে। করোনাভাইরাস মহামারিকালে সৌদিপ্রবাসী যাঁরা দেশে এসেছিলেন, দেশটির সরকার বিমান চলাচল আবার শুরু করলেও বাংলাদেশ থেকে যাওয়ায় দেখা দেয় বিপত্তি। সৌদি আরবের অনুমতি না মেলায় এবং বিমান সে দেশে নিয়মিত বাণিজ্যিক ফ্লাইট আবার চালু করতে না পারায় সৌদিতে কর্মরত অনেক বাংলাদেশি বিমানের টিকিট কেটে রেখেও যেতে পারছিলেন না। অন্যদিকে ফ্লাইট কম থাকায় সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইনসও এত যাত্রীর চাপ নিতে পারছিল না। এই পরিস্থিতিতে সৌদিপ্রবাসী কর্মীরা নেমেছিলেন বিক্ষোভে। তাঁরা বিমান ও সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইনস অফিসের সামনে দুদিন বিক্ষোভের পর বুধবার প্রবাসী কল্যাণ ভবনের সামনেও বিক্ষোভ করেন।

অবশেষে সব সমস্যার সমাধান এসেছে কূটনৈতিক তৎপরতায়। দুই দেশের ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের পর সৌদি আরবগামী  কর্মীদের দুশ্চিন্তা দূর হয়। এখন ফ্লাইট বাড়াচ্ছে বিমান সংস্থাগুলো। বেশিসংখ্যক বাংলাদেশি প্রবাসীকে সৌদিতে তাঁঁদের কর্মস্থলে পৌঁছে দিতে আগামী ছয় দিন ঢাকা থেকে  ছয়টি ফ্লাইট পরিচালনা করবে সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইনস। এই ছয়টি বিশেষ ফ্লাইট ছাড়াও তাদের সাপ্তাহিক দুটি নিয়মিত ফ্লাইট ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চালিয়ে যাওয়া হবে। বিমানও ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি পেয়েছে।

আটকে পড়া কর্মীদের ফেরাতে সরকারের কূটনৈতিক তৎপরতায় সমাধান এসেছে। সৌদি আরবের পর আটকে পড়া প্রবাসীদের ওমানে ফেরা নিয়ে সমস্যাও কেটে গেছে। ওমান সরকার জানিয়েছে, আগামী ১ অক্টোবর থেকে আটকে পড়া বাংলাদেশিরা ওমানে ফিরতে পারবেন। প্রবাসী কর্মীদের অনিশ্চয়তার অবসান হয়েছে, এটা আমাদের কূটনৈতিক সাফল্য। এই সাফল্য আগামী দিনেও ধরে রাখতে হবে। তবে সচেতন থাকতে হবে অভ্যন্তরীণ ষড়যন্ত্রের বিষয়ে। আমরা দেখেছি প্রবাসী কর্মীদের বিক্ষোভের সময় একটি মহল থেকে উসকানি দেওয়ার চেষ্টা হয়েছে। প্রকাশ্যে এসেছে এক রাজনৈতিক কর্মীর নাম ও পরিচয়। এটা অনাকাঙ্ক্ষিত।

মন্তব্য