kalerkantho

শনিবার । ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৬ জুন ২০২০। ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

এর মধ্যেও খুনখারাবি!

আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে ব্যবস্থা নিন

২৯ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দেশের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বেশির ভাগ ইউনিট এখন করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যস্ত। আর এই অবসরে বেড়েছে সামাজিক অপরাধ। দেশ যে একটা ক্রান্তিকাল পার করছে, এই অপরাধীদের অপরাধপ্রবণতা থেকে সেটা বোঝার উপায় নেই। গতকাল কালের কণ্ঠে প্রকাশিত খবরগুলোর দিকে তাকালে মনে হবে দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতিই হয়েছে। খবরে বলা হচ্ছে, সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাবাকে হত্যা করেছে ছেলে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন মা। জামালপুর সদর উপজেলার মেষ্টা ইউনিয়নের দোয়ানিপাড়া গ্রাম থেকে এক ইজি বাইক চালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলার ঘাসিয়াড়া গ্রামের কবরস্থান এলাকার একটি কাঁঠালগাছ থেকে এক ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। কুমিল্লার বুড়িচংয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে এক কিশোরের মরদেহ। শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ীতে মরিচপুরনা ইউনিয়নের খলাভাঙ্গা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে এক ইটভাটা শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রাজশাহীতে আমবাগান থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নীলফামারীর সৈয়দপুরে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মেহেরপুর পৌর এলাকা ও সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া থেকে দুই গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ওদিকে সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে হত্যার উদ্দেশ্যে শানু খাতুন নামের এক নারীকে এসিডে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের পাখিমারা গ্রামের এক ভূমিহীন স্থানীয় প্রেস ক্লাবে এসে অভিযোগ করেছেন, তাঁর বন্দোবস্ত পাওয়া প্রায় ৩০ শতক খাসজমি দখল করে প্রভাবশালী এক দম্পতি আধাপাকা ঘর তুলছেন। নরসিংদীর মনোহরদীতে দাবি করা চাঁদার টাকা না দেওয়ায় বাজারের মার্কেটে ভাঙচুর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আমাদের সমাজে অপরাধপ্রবণতা বেড়েছে। কোনোভাবেই সমাজকে অপরাধমুক্ত করা যাচ্ছে না। সামাজিক অপরাধের পাশাপাশি পারিবারিক অপরাধের মাত্রাও বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। সমাজে পরিবর্তনের এক অসুস্থ ধারা তৈরি হচ্ছে। এই পরিবর্তিত অবস্থার সহিংস বহিঃপ্রকাশ ঘটতে দেখা যাচ্ছে। কারণ সমাজ পরিবর্তনের এ ধারার সঙ্গে অনেকেই খাপ খাওয়াতে পারছে না। সামগ্রিক সমাজব্যবস্থায় এক ধরনের অস্থিরতা দেখা দিচ্ছে। প্রকাশিত খবরগুলোও বলছে, করোনাভাইরাসের কারণে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা যখন বিশেষ দায়িত্ব পালনে ব্যস্ত তখন কিছু মানুষ অপরাধপ্রবণ হয়ে উঠছে। এই প্রবণতা দমনে এখনই কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে। একটি সুন্দর সমাজব্যবস্থা আমাদের সবারই কাম্য। সেখানে এই চরম দুশ্চিন্তার দিনেও যারা খুনখারাবির মতো অপরাধ ঘটাতে পারে, তাদের বিরুদ্ধে চরম ব্যবস্থাই নিতে হবে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা