kalerkantho

শনিবার । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৫ আগস্ট ২০২০ । ২৪ জিলহজ ১৪৪১

শর্ত সাপেক্ষে খালেদা জিয়ার মুক্তি

সংকট মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধ হোন

২৭ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুর্নীতির দায়ে ২৫ মাস সাজা ভোগের পর ‘মানবিক বিবেচনায়’ সরকারের নির্বাহী আদেশে শর্ত সাপেক্ষে ছয় মাসের জন্য মুক্তি পেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। করোনাভাইরাসের আতঙ্কের মধ্যে বাংলাদেশের রাজনীতিতে খবরটি নিঃসন্দেহে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ দুই বছর ধরে খালেদার জামিনের জন্য আইনজীবীরা বহুবার আদালতে গেলেও জামিন মঞ্জুর হচ্ছিল না। বিএনপিকর্মীরা রাজপথে মিছিল-মানববন্ধন করছিল কিন্তু তাদের নেত্রীর মুক্তির পথ খুলছিল না। গণমাধ্যমে এমন খবর এসেছে যে এই প্রেক্ষাপটে মার্চের শুরুতে ‘মানবিক কারণে’ খালেদা জিয়ার সাময়িক মুক্তি চেয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়। বিএনপি চেয়ারপারসনের নিকটাত্মীয়রা এ বিষয়ে কথা বলতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন বলেও খবর আসে সে সময়। শেষ পর্যন্ত নির্বাহী আদেশে দণ্ডের কার্যকারিতা স্থগিত করে খালেদা জিয়াকে শর্ত সাপেক্ষে ছয় মাসের জন্য মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তির শর্ত হলো—এই সময়ে তাঁকে ঢাকায় নিজের বাসায় থেকে চিকিৎসা নিতে হবে। তিনি বিদেশে যেতে পারবেন না। কিন্তু তিনি রাজনীতিতে সক্রিয় হতে পারবেন কি না তা জানা যাচ্ছে না। সরকারের নির্বাহী আদেশে মুক্তি পেলেও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আপাতত কিছুদিন কোয়ারেন্টিনে থাকবেন বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিষয়টি অত্যন্ত জরুরি। কারণ এমন একসময়ে তাঁকে মুক্তি দেওয়া হলো, যখন নভেল করোনাভাইরাসের মহামারিতে বিশ্বজুড়ে চলেছে উদ্বেগ, উত্কণ্ঠা; নানা বিধিনিষেধে বাংলাদেশও রয়েছে অবরুদ্ধ অবস্থায়। নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে এ সময় জনসমাগম এড়ানোর নির্দেশনা রয়েছে সরকারের; সংক্রমণের ভয় রয়েছে বিএনপি নেতাদের মধ্যেও। যদিও দলীয় নেত্রীর হাসপাতাল থেকে বাসায় যাওয়ার পথে কোনো নির্দেশনাই মানেনি দলের কর্মীরা।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের উদ্যোগ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী প্রজ্ঞা, অভিজ্ঞ ও দূরদর্শী নেতৃত্বের পরিচয় দিয়ে উদারনৈতিক মানবিকতার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন; এমনটি দাবি করেছে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। বিষয়টি নিয়ে এ সময় রাজনীতির কোনো সুযোগ নেই বলে আমরা মনে করি। আমাদের প্রত্যাশা বর্তমান সংকট থেকে উত্তরণে সবাই একযোগে কাজ করবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা