kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

এসএ গেমসে সাফল্য

কিছু ইভেন্টে ব্যর্থতার কারণ খুঁজতে হবে

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এসএ গেমসে সাফল্য

নেপালের কাঠমাণ্ডুতে এসএ গেমসে নিজেদের উজ্জ্বল উপস্থিতি বেশ ভালোভাবেই জানিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশে। দেশের ক্রীড়াবিদদের কাছ থেকে এটাই প্রত্যাশিত ছিল। তাঁরা নিজেদের সেরা পারফরম্যান্স উজাড় করে দিতে পারলেই আসবে সাফল্য। ব্যক্তিগত কিংবা দলগত, যে ইভেন্টই হোক না কেন, তাঁদের সাফল্যেই হাসবে বাংলাদেশ। তাঁদের নিয়ে গর্ব করবে দেশের মানুষ।

গতকাল সকাল পর্যন্ত চারটি সোনা, পাঁচটি রুপা ও ২০টি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন বাংলাদেশের ক্রীড়াবিদরা। বিশেষ করে কারাতেতে দেশের কারাতেকারা দেখিয়েছেন বিশেষ সাফল্য। দেশের গণমাধ্যমও প্রশংসায় পঞ্চমুখ। প্রকাশিত খবরে বলা হচ্ছে, এমন উপলক্ষ কারাতে খুব বেশি দিতে পারেনি। দক্ষিণ এশিয়ান গেমসের ইতিহাসে ২০১০ আসরে চারটি সোনা, একটি রুপা ও তিনটি ব্রোঞ্জ এসেছিল কারাতে থেকে, এখন পর্যন্ত এক আসরে সেটাই কারাতেকাদের সেরা সাফল্য। নেপালের আসরে সেটা ছাপিয়ে যাওয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছে। আল আমিন ইসলাম, মারজান আক্তার প্রিয়া, হুমায়রা আক্তার অন্তরার হাত ধরে তৃতীয় দিনে তিনবার সোনার হাসি হেসেছে বাংলাদেশ। ওদিকে দশরথ স্টেডিয়ামে ছেলেদের হাই জাম্পে ২ দশমিক ১৬ মিটার লাফিয়ে রুপা জিতেছেন মাহফিজুর রহমান। কেটেছে এসএ গেমসের হাই জাম্পে বাংলাদেশের পদক না পাওয়ার হতাশা। জাতীয় অ্যাথলেটিকসের রেকর্ডও দশরথের ট্র্যাকে ভেঙেছেন মাহফিজুর। যদিও কাঙ্ক্ষিত সাফল্য আসেনি শ্যুটিং থেকে। মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার রাইফেল দলগত ইভেন্টে রুপা জিতেছেন বাংলাদেশের সৈয়দা আতকিয়া হাসান দিশা, উম্মে জাকিয়া সুলতানা টুম্পা ও শারমীন আক্তার রত্না। ছেলেদের ৫০ মিটার এয়ার রাইফেল থ্রি পজিশন ইভেন্টে দলগত রুপা জিতেছে আব্দুল্লাহ হেল বাকী, ইউসুফ আলী ও শোভন চৌধুরীকে নিয়ে গড়া দল। ছেলেদের চ্যান কুয়ান থাউলো ইভেন্টে ৯ দশমিক ৩৪ স্কোর গড়ে রুপা পেয়েছেন ওমর ফারুক। মেয়েদের বিভাগে ৭ দশমিক ৫৩ স্কোর নিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন নূর বাহার খানম। সানদা অনূর্ধ্ব-৫২ কেজিতে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন ফাহমিদা তাবাসসুম। ক্রিকেটে মেয়েরা শ্রীলঙ্কাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে দিয়ে শুভ সূচনা করেছে। ছেলেদের বিভাগে বুধবার নিজেদের প্রথম ম্যাচে মালদ্বীপকে ১০৯ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল।  ১৭৫ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে মালদ্বীপ গুটিয়ে যায় মাত্র ৬৫ রানে। কিন্তু ধারাবাহিকতা ধরে রেখে ছেলেদের ফুটবল দল দিয়েছে হতাশার খবর। ভুটানের কাছে হেরে আসার পর মালদ্বীপের বিপক্ষে মঙ্গলবার ১-১ ড্র করেছে জেমি ডের দল!

এসএ গেমসে ক্রীড়াবিদদের সাফল্য প্রাণিত করবে আগামী প্রজন্মকে। আজকের সাফল্য আগামী দিনের তারকাদের ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে নিজেদের সেরা পারফরম্যান্স দিতে উৎসাহ জোগাবে। কিন্তু যেসব ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যর্থ হচ্ছে, তার কারণগুলোও খুঁজে বের করতে হবে। কেন ফুটবলে এই হতাশা? অন্য অনেক ইভেন্টে কেন সাফল্য আসেনি তা খতিয়ে দেখা দরকার।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা