kalerkantho

শনিবার । ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৬ জুন ২০২০। ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

কী খাবে

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির খাবারদাবার

এখনো কোনো টিকা আবিস্কার হয়নি, আপাতত দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাই করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার একমাত্র হাতিয়ার। সুতরাং চলজলদি জেনে নেওয়া যাক কী কী খাবার এই সময়ে বেশি বেশি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে। পরামর্শ দিয়েছেন সিউরসেল-চট্টগ্রাম-এর পুষ্টিবিদ রাশেদা আফরিন মেরিনা

৫ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির খাবারদাবার

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা রাতারাতি তৈরি হয় না। এ জন্য নিয়মিত কিছু খাবারদাবার খেতে হয়, বিশেষ করে যেসব খাবারে ভিটামিন ‘সি’ বেশি আছে। ভিটামিন ‘সি’ ফুসফুসের সংক্রমণজনিত সমস্যার জন্য ভালো। অন্যদিকে এটি একটি শক্তিশালী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। এটি কিশোর-কিশোরীদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করে। টমেটো, লেবু, ধনেপাতা, সবুজ শাকসবজিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ আছে। অন্যদিকে ফলের মধ্যে পেয়ারা, বরই, কমলা, মালটা, সবুজ আপেল ইত্যাদি ভিটামিন ‘সি’সমৃদ্ধ। ভিটামিন ‘ডি’ও এ সময়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন ২০ মিনিট নির্দিষ্ট সময়ে সূর্যের আলোতে থাকবে। তোমরা হয়তো জানো, সূর্যের আলো থেকে ভিটামিন ‘ডি’ উত্পন্ন হয়। দুগ্ধজাতীয় খাদ্য যেমন দই, পনির, মিল্কশেক ভিটামিন ‘ডি’সমৃদ্ধ। ভিটামিন ‘ডি’ এবং জিংক আমাদের নষ্ট হয়ে যাওয়া কোষগুলোকে ঠিক করে এবং মূত্রনালির সংক্রমণ রোধ করে। অন্যদিকে জিংক আমাদের ইউমিনিটির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। চিংড়ি, সামুদ্রিক মাছ, ডিমের কুসুমে জিংক থাকে। ভিটামিন ‘সি’ এবং জিংক আমাদের দেহে জমা হয় না, তাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় ভিটামিন ‘সি’ ও জিংকসমৃদ্ধ খাবার রাখতে হবে। গ্রিন-টি, আদা চা, ডেটক্স টি  ইনফ্লামেশন কমায়। অন্যদিকে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টেরও জোগান দেয়। আমাদের শরীরের ইলেকট্রোলাইট সমতাকরণেও সাহায্য করে। ভিটামিন ‘কে’সমৃদ্ধ খাবার যেমন কলা, ডাবের পানি প্রতি সপ্তাহে চার-পাঁচ দিন খাওয়া উচিত। গরুর মাংস, মাছ, ডিম আমাদের দেহে ইন্টারফেরন হরমোন বৃদ্ধি করে ভাইরাস সংক্রমণের বিরুদ্ধে ভূমিকা রাখে। চিনিজাতীয় খাবার যেমন কোমল পানীয়, ফাস্ট ফুড এড়িয়ে চলতে হবে। কারণ এটা ফ্যাট বৃদ্ধি করে এবং করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিতে পারে।                                                 

অনুলিখন: জুবায়ের আহম্মেদ

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা