kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

শরীর ও মন

রাতে ফোন হাতে নয়

ঘুম থেকে ওঠার পর রাত পর্যন্ত হাতে থাকে স্মার্টফোন। কিন্তু রাত বাড়ার পরও যদি ফোনটা হাত থেকে না সরে, তবেই এসে হাজির হবে আপদ। তোমাদের এ অভ্যাস থাকলে সেটা আরো চিন্তার বিষয়। রাত জেগে ফোনে চোখ বোলালে কী বিপদ হবে, সেটা জানাচ্ছেন জাতীয় বক্ষব্যাধি হাসপাতালের চিকিত্সক ডা. সাইফুল ইসলাম

১৭ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাতে ফোন হাতে নয়

অল্প বয়সেই নিদ্রাহীনতা

স্মার্টফোন থেকে নির্গত রশ্মি আমাদের শরীরে মেলাটোনিন নামের একটি হরমোন নিঃসরণে বাধা দেয়। এতে ঘুমে বিঘ্ন ঘটে। অন্যদিকে রাত জেগে ফেসবুক, ইউটিউব, গেম খেলার কারণে রাতের ঘুমটাও নষ্ট হয়। এটা বদ-অভ্যাস হতে বেশি সময় লাগে না। ফলে তাত্ক্ষণিকভাবে ঘুম না আসা এবং দিনের বেলায় অবসাদ ও ক্লান্তি দেখা দেয়। এতে স্কুলেও থাকে না মনোযোগ। এ অভ্যাস চলতে থাকলে পড়াশোনার বারোটা বাজতে বেশি সময় লাগবে না।

 

চোখের সমস্যা

স্মার্টফোন থেকে বের হওয়া কড়া আলো রেটিনার ওপর চাপ ফেলে। আমেরিকান ম্যাকুলার ডিজেনারেশন ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, অতিরিক্ত স্মার্টফোন ব্যবহারে রেটিনার ম্যাকুলায় ডিজেনারেশন হয়, যাতে সেন্ট্রাল ভিশন কমে যায়। এ ছাড়া যুক্তরাজ্যের চক্ষুবিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, স্মার্টফোনের অতিরিক্ত ব্যবহারে মায়োপিয়া বা ক্ষীণদৃষ্টি রোগ দেখা দিতে পারে।

 

মানসিক সমস্যা

রাত জেগে স্মার্টফোন ব্যবহারে কিশোর-কিশোরীদের মধ্যে আচরণগত পরিবর্তন দেখা দিতে পারে। যেমন—মেজাজ খিটখিটে থাকা। এ ছাড়া ডিপ্রেশনও দেখা দিতে পারে। অস্ট্রেলিয়ার ১১০১ শিক্ষার্থীর ওপর গবেষণা করে দেখা গেছে, ১৩-১৬ বছর বয়সী কিশোর-কিশোরীরা অতিরিক্ত মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে প্রায়ই হতাশায় ডুবে থাকে।

 

ক্যান্সারের ঝুঁকি

মেলাটোনিন একটি গুরুত্বপূর্ণ হরমোন, যা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। যখন মেলাটোনিনের মাত্রা কমে যায়, তখন ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

 

কমবে শ্রবণশক্তি

সাধারণত টিনএজাররা স্মার্টফোনের সঙ্গে ইয়ারফোনও ব্যবহার করে। ইয়ারফোনে রাতে গান শোনাও অনেকের অভ্যাস। এতে অন্তঃকর্ণের কোষে প্রভাব পড়ে এবং ক্রমাগত ব্যবহারে শ্রবণশক্তি কমে যায়।

 

সুতরাং...

রাতে ঘুমানোর এক ঘণ্টা আগে স্মার্টফোন হাতছাড়া করা উচিত। ঘুমানোর সময় নিজের পাশে ফোন না রেখে অন্য রুমে রেখে আসা বা এমন জায়গায় রাখা, যাতে হাত বাড়ালেই না পাওয়া যায়।

স্মার্টফোনের নীল আলো ঘুমের বেশি সমস্যা করে। তাই ঘুমাতে যাওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে ব্লু লাইট ফিল্টার ব্যবহার করা যেতে পারে। এই ফিল্টার একটি অ্যাপ। গুগল প্লেস্টোরেই আছে।

টিনএজ বয়সে স্মার্টফোন ব্যবহার কম করাই ভালো। কথা বলার জন্য কম দামি ফোন ব্যবহার করো আর কম্পিউটারে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারো—এ দুটি হলে কিন্তু স্মার্টফোন আর লাগে না।

অনুলিখন : জুবায়ের আহম্মেদ

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা