kalerkantho

রবিবার । ২০ অক্টোবর ২০১৯। ৪ কাতির্ক ১৪২৬। ২০ সফর ১৪৪১                

টিন তারকা

এক হালি রেকর্ড তার!

এ বছরের ৩১ মার্চ দলছুটে ছাপা হয়েছিল গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম লেখানো নোয়াখালীর কিশোর কনক কর্মকারের কথা। পাঁচ মাস না পেরোতেই কনকের ঝুলিতে মোট চারটি বিশ্বরেকর্ড। কনকের সঙ্গে কথা বলেছেন জুবায়ের আহম্মেদ

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এক হালি রেকর্ড তার!

মাথায় এভাবে বল বয়ে বেড়ানো তার কাছে নস্যি

ফেনী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ছাত্র কনক কর্মকার। ছোটবেলা থেকেই ফুটবলে ঝোঁক। ২০১৮ সালে পরিচয় হয় ফুটবল ফ্রিস্টাইলের সঙ্গে। গিনেস বুকের বিভিন্ন রেকর্ড দেখে সেগুলো ভাঙার চেষ্টা চালিয়ে যেতে লাগে। সপ্তাহে তিন-চার দিন টানা দু-তিন ঘণ্টা চলে অনুশীলন। কিন্তু ফ্রিস্টাইলের রেকর্ড ভাঙতে না পারলেও ভেঙেছে অন্য চারটি রেকর্ড। প্রথম রেকর্ডটি ছিল মোস্ট কাপ ব্যালান্স অন দ্য ফোরহেড। ১ মিনিট ৬ সেকেন্ড ধরে ৬০০টি কাপ কপালে রেখেছিল ও। রেকর্ডটি করে ২২ নভেম্বর ২০১৮ সালে। কনকের দ্বিতীয় রেকর্ড লংগেস্ট টাইম ব্যালান্স এ গিটার অন ফোরহেড। অর্থাৎ কপালে টানা ২৫ মিনিট একটি গিটার রাখতে পেরেছিল। এ রেকর্ডের সার্টিফিকেট আসে ১ জুলাই। ‘মোস্ট বাস্কেটবল নেক ক্যাচেস ইন ওয়ান মিনিট’ হলো কনকের তৃতীয় রেকর্ড। রেকর্ডটি করে গত ৫ জুন এবং ভিডিও পাঠানোর পর স্বীকৃতি মেলে ২৩ আগস্ট। চতুর্থ রেকর্ডটি হলো থুতনির ওপর সবচেয়ে বেশি সময় ধরে গিটার রাখা। টানা ১৫ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড থুতনির ওপর গিটার ধরে রেখেছিল ও!

হালি তো হলো, এবার রেকর্ডের ডজন হবে কবে?

ডজনের জন্য সময় দিতে হবে। সবাই দোয়া করবেন, যাতে আমি শিগগিরই ডজন পার করতে পারি। হালি যখন পুরেছে, ডজন হতে কতক্ষণ!

 

গিটার তো বাজায়, তুমি রেকর্ড করতে গেলে কেন?

আমি গিটার বাজাতে পারি না। তবে গিটারের শব্দ ভালো লাগে। একবার দলছুটে গিটার শেখার ফিচার দেখে শেখার ইচ্ছাও জেগেছিল। এদিকে আমি যেহেতু ব্যালান্সিংটা ভালো পারি, তাই গিটার দিয়েই রেকর্ড করি।

 

তবলা নিয়ে রেকর্ড করবে না?

ভালো আইডিয়া! তবলা দিয়ে এমন রেকর্ড নাই! আমিই তাহলে তবলা মাথায় নিয়ে নাচব।

 

রেকর্ড ভাঙার ইচ্্ছা জাগল কেন?

ছোটবেলা থেকেই ভাঙাভাঙির ইচ্ছা ছিল। সেটা পূরণ করতেই...।

 

গিনেস রেকর্ডে নাম লেখানোর ইচ্ছা হলো কেন?

ব্যালান্সিং আমার পছন্দের বিষয়। এ কাজে আরশিতা ফারমানকে গুরু মানি। পৃথিবীর সর্বোচ্চ গিনেস রেকর্ডের মালিক তিনি (বর্তমান রেকর্ডের সংখ্যা ২২৬)। তাঁর ফুটবলের রেকর্ডগুলো আমার বেশি ভালো লাগে। তাঁর অনুপ্রেরণায়ই এ কাজ শুরু।

 

এত রেকর্ডের মন্ত্র কী?

আমিই আমার মন্ত্র। আত্মবিশ্বাসই বড় কথা। এ ছাড়া বন্ধুরা উত্সাহ দেয়। সঙ্গে গুরুজনদের দোয়া তো আছেই।

 

আর কোন রেকর্ড গড়ার ইচ্ছা?

আমি ফুটবল ভালোবাসি। ফুটবল নিয়ে আরো বিচিত্র সব রেকর্ড করতে চাই। পাশাপাশি ব্যালান্সিং নিয়েও আরো রেকর্ড করতে চাই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা