kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৭ মাঘ ১৪২৭। ২১ জানুয়ারি ২০২১। ৭ জমাদিউস সানি ১৪৪২

রোজকার ভুল

৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রোজকার ভুল

হৃদরোগ নিয়ে কিছু ভ্রান্ত ধারণা আছে মানুষের। এসবের আসলে কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। হৃদরোগ নিয়ে এমন কিছু ভ্রান্ত ধারণা বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের হৃদরোগ বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. আব্দুল ওয়াদুদ চৌধুরী

 

ভুল : বংশে কারো হৃদরোগ থাকলে অন্যজনও হৃদরোগে আক্রান্ত হবে।

জেনেটিক বা বংশগত কারণে কারো হৃদরোগ হতে পারে, তবে একক বংশগত কারণে হৃদরোগ কম হয়। হৃদরোগের সঙ্গে অনেক ফ্যাক্টর জড়িত। পরিবেশের সম্পর্কও রয়েছে। অর্থাৎ প্রকৃতি ও পরিবেশ এসব কন্ট্রোল করে।

 

ভুল : অ্যাজমা রোগীদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বেশি।

অ্যাজমা রোগীদের যে হৃদরোগ হবেই এমনটা নয়। এটা নির্ভর করে রোগীর ডায়াবেটিস, রক্তচাপ, কোলেস্টেরল লেভেল বেশি কি না তার ওপর। তবে যাঁরা আনকন্ট্রোল্ড অ্যাজমার রোগী অথবা যাঁরা নিয়মিত শ্বাসকষ্টে ভুগে থাকেন, তাঁদের কর-পালমোনালে জাতীয় হৃদরোগ অথবা ইসকেমিক হার্ট ডিজিজ হতে পারে।

 

ভুল : নিম্ন রক্তচাপের রোগীদের হৃদরোগে আক্রান্তের আশঙ্কা নেই।

নিম্ন রক্তচাপে ভোগা মানুষের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা একেবারে নেই তা নয়, তবে বলা যায়, তাদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেক কম। এর পাশাপাশি যে বিষয়গুলো দেখতে হবে তা হলো—ওই ব্যক্তির ডায়াবেটিস রয়েছে কি না, উচ্চ রক্তচাপ আছে কি না, তিনি ধূমপান করেন কি না বা তাঁর কোলেস্টেরল লেভেল বেশি কি না। এসব বিষয় দেখে বলা যাবে, আসলে তাঁর হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কতটুকু।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা