kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৬ সফর ১৪৪২

বাড়িতেই হোক নিয়মিত শরীরচর্চা

ডা. মোহাম্মদ নুরুজ্জামান, সহযোগী অধ্যাপক, মেডিসিন বিভাগ, এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, দিনাজপুর

৮ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাড়িতেই হোক নিয়মিত শরীরচর্চা

পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেও করোনা সংক্রমণের কারণে অনেকে এখনো ঘরবন্দি, বিশেষ করে পড়ুয়া ও বয়স্করা। এই অবস্থায় হচ্ছে না শরীরের মুভমেন্ট বা ব্যায়াম। ফলে মাঝেমধ্যেই ঘাড়, হাত-পা বা কোমরের পেশিতে টান পড়ছে কারো কারো। এই পরিস্থিতিতে বাড়িতেই শুরু করুন ব্যায়াম। কিন্তু কিভাবে, কতটা ব্যায়াম, তা জানা দরকার আগে।

 

আপনি যা করবেন

►        যে কেউ করতে পারেন যোগব্যায়াম, মেডিটেশন বা ধ্যান। এটা সবার জন্যই উপযোগী। শরীর সুস্থ এবং মন শান্ত রাখার জন্য এসব ব্যায়াম বেশ কার্যকর। সুতরাং মনস্থির করে শুরু করে দিন আজই।

►        দিনের কোনো একটা সময়ে ছাদে বা বাড়ির সামনে ৩০-৪০ মিনিট করে (একটু বেশি দ্রুত পায়ে) হাঁটুন।

►        কয়েক দিন হাঁটা অভ্যাস হয়ে গেলে এরপর উপযুক্ত জুতা পরে জগিং শুরু করুন। এতে শরীরের জড়তা ভাঙবে, রক্ত সঞ্চালন বাড়বে, শরীর ব্যায়াম বা ওয়ার্ক আউটের জন্য প্রস্তুত হবে।

►        এবার ধীরে ধীরে ফ্রিহ্যান্ড ব্যায়াম শুরু করুন।

►        স্ট্রেচিং বা বেন্ডিং জাতীয় ব্যায়াম করতে করতে শরীর নমনীয় হলে ব্যথা বা পেশির টানগুলো আর টের পাবেন না।

►        যদি সকালে উঠে ব্যায়াম করা সম্ভব না হয়, তাহলে বিকেল বা যেকোনো সময় বেছে নিতে পারেন।

►        খাওয়াদাওয়া করার পর অন্তত দু-তিন ঘণ্টার ব্যবধানে ব্যায়াম শুরু করুন। খাওয়াদাওয়ার পর এই গ্যাপ না দিলে ব্যায়ামের সময় মাথা ঘোরা, বমি বমি ভাব বা পেশিতে খিঁচ ধরতে পারে।

►        হাঁটা, জগিং বা ব্যায়াম শেষ হয়ে গেলেও স্থির হয়ে মিনিট পাঁচেক বসে ধ্যান করুন। চোখ বন্ধ করে গভীর শ্বাস-প্রশ্বাস নিন।

►        কম বয়সীরা করতে পারেন পুশ-আপ আর বয়স্করা করতে পারেন ওয়াল পুশ-আপ। তারপর প্রাণায়াম বা ব্রিদিং এক্সারসাইজ। মনে রাখতে হবে, ফুসফুস ভালো রাখার জন্য প্রাণায়াম এখন প্রয়োজনীয় ঠিকই, কিন্তু মাত্রাতিরিক্ত নয়। একেকবার ১০-১৫ বার শ্বাস গ্রহণ ও ত্যাগ করুন।

 

তাই আর দেরি নয় বা অলস শরীর পুষে নয়, করোনা আক্রান্ত হোক বা না হোক, সুস্থ ও সক্ষম থাকতে আজ থেকেই শুরু করুন নিয়মিত শরীরচর্চা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা