kalerkantho

শুক্রবার । ২০ চৈত্র ১৪২৬। ৩ এপ্রিল ২০২০। ৮ শাবান ১৪৪১

শিশুর কাশি হলে করণীয়

শিশুদের কাশি হলে পরিবারে নেমে আসে অশান্তি। বিশেষ করে রাতের বেলায় কাশির পরিমাণ বাড়ে। অনেকে কাশতে কাশতে ঘুমের মধ্যে জেগে ওঠে, এমনকি উঠে বসেও পড়ে। এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে কিছু করণীয় সম্পর্কে জানাচ্ছেন সাহাবুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শিশুরোগ বিভাগের প্রধান ডা. দেলোয়ার হোসেন মোল্লা

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিশুর কাশি হলে করণীয়

নাক পরিষ্কার রাখুন

লবণপানিতে ভিজিয়ে নরম কাপড় দিয়ে নাক পরিষ্কার করে দিন। নরসল স্যালাইন বা স্যালাইন ড্রপ দিয়েই নাক পরিষ্কার করা যায়। স্যালাইন ড্রপ মিউকাসের পর্দা পাতলা করে শ্বাস-প্রশ্বাস চলাচলে বাধা দূর করে। নাক বারবার ঝেড়ে পরিষ্কার রাখতে পারলে ভালো। না হলে কফ বের করতে সাকশন বাল্ব ব্যবহার করতে পারেন। এতে শিশুর নাসারন্ধ্র খুলে যাবে এবং শ্বাস নিতে সুবিধা হবে।

 

উঁচুতে মাথা

রাতে ঘুমানোর সময় বালিশ একটু উঁচু করে, অ্যাঙ্গেল করে দিন। মাথা একটু ওপরে থাকলে ঘুমের মধ্যে কাশি কম হবে। নিঃশ্বাস নিতেও বেশ সুবিধা হবে। খেয়াল করুন, কোনো শব্দ হচ্ছে কি না বা নিঃশ্বাস নিতে নাকে কোনো বাধা পাচ্ছে কি না।

 

মাস্ক পরান

এ সময় রাস্তায় বের হলে শিশুদের মাস্ক পরান। বাইরে থেকে আসার পর শরীর মুছে দিন। ঘামে ভেজা কাপড় দ্রুত পাল্টে দিন।

 

কখন চিকিৎসক?

সর্দি-কাশির সঙ্গে জ্বর থাকলে অথবা টানা দুই সপ্তাহের বেশি কাশি থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। প্রয়োজনে এক্স-রে, কফসহ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ওষুধ খাওয়ান। নিজে নিজে কোনো ওষুধ বা অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়াতে বা খেতে যাবেন না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা