kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পরামর্শ

নয় অতিরিক্ত লবণ

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নয় অতিরিক্ত লবণ

অধিক লবণ স্বাস্থ্যের জন্য অনেক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। লবণকে সাইলেন্ট কিলার বা নীরব ঘাতকও বলা হয়। দেখা গেছে, বিশ্বের যেসব জনগোষ্ঠী লবণ কম খায়, তাদের ৮০ শতাংশের উচ্চ রক্তচাপ নেই।

 

❏ অতিরিক্ত লবণ উচ্চ রক্তচাপ বৃদ্ধি করে, যা হৃদরোগ, স্ট্রোক, কিডনি, পক্ষাঘাত, অন্ধত্বসহ নানাবিধ জটিল অসুখের গুরুত্বপূর্ণ রিস্ক ফ্যাক্টর বা ঝুঁকিপূর্ণ উপাদান।

❏ অতিরিক্ত লবণ গ্রহণে হাড়ের ক্যালসিয়াম ক্ষয়ে হাড় পাতলা হয়ে যায়, যাকে বলে অস্টিওপোরোসিস। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই পাতলা হাড়গুলোর ভঙ্গুরতা বৃদ্ধি পায়, যা জোড়া লাগতে অনেক সময় লাগে।

❏ অধিক লবণ গ্রহণে পাকস্থলীর ক্যান্সার, শারীরিক স্থূলতা হতে পারে এবং অ্যাজমার উপসর্গগুলো বৃদ্ধি পায়।

 

পরামর্শ

❏ ভাত খাওয়ার সময়, কাঁচা ফলমূল ও সবজি খাওয়ার সময় বাড়তি লবণ পরিত্যাগ করুন।

❏ ফাস্ট ফুডে বেশি মাত্রায় লবণ থাকে বলে কম খান বা এড়িয়ে চলুন।

❏ টিনজাত স্যুপ, সবজি, মাছ-মাংস, নোনতা খাবার এড়িয়ে চলুন। কারণ এসব খাবার বেশিদিন ভালো রাখার জন্য অধিক লবণ ব্যবহার করা হয়।

❏ লবণ দেওয়া বাদাম, চিপস, পপ কর্ন, সয়াসস পরিহার করুন।

❏ শুঁটকি তৈরির প্রধান উপাদান লবণ, তাই শুঁটকি কম খেতে পারেন।

❏ খাদ্য সংরক্ষণ করার জন্য লবণের বদলে লেবুর রস বা ভিনেগার ব্যবহার করুন।

ডাক্তার আছেন ডেস্ক

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা