kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

ভেজালবিরোধী অভিযান

বাসি-পচা খাবার, জরিমানা গুনল খন্দকার হোটেল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাসি-পচা খাবার, জরিমানা গুনল খন্দকার হোটেল

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ ও বাসি-পচা খাবার মজুদের কারণে গতকাল ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ভেজালবিরোধী ভ্রাম্যমাণ আদালত পুরান ঢাকার খন্দকার হোটেলকে জরিমানা করেন। ছবি : কালের কণ্ঠ

বাইরে ফিটফাট, ক্রেতাদের বসার স্থানও পরিচ্ছন্ন। তবে অন্দরমহলের চেহারা ভিন্ন। রান্নাঘরে কটু গন্ধ, ফ্রিজে বাসি-পচা খাবার, মেঝেতে আবর্জনা। এমনিতে ভোক্তাদের আস্থায় থাকা পুরান ঢাকার খন্দকার হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট গতকাল বৃহস্পতিবার পড়েছে জরিমানার কবলে। ভেজালবিরোধী অভিযানে ম্যাজিস্ট্রেট হোটেলটির পাকঘরে ঢুকে দেখেন চরম অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ। এক লাখ টাকা জরিমানার পাশাপাশি মালিক ও ম্যানেজারকে করা হয়েছে চূড়ান্ত সতর্ক।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ভেজালবিরোধী ভ্রাম্যমাণ আদালত গতকাল বৃহস্পতিবার অভিযান চালায় পুরান ঢাকার কাপ্তানবাজার এলাকায়। ওয়ারী থানা পুলিশ ও বিএসটিআই প্রতিনিধিদের সহায়তায় দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে অভিযান শুরু হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে টিম প্রবেশ করে কাপ্তানবাজারের খন্দকার হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্টে। বহুতল ভবন খন্দকার কনভেনশন সেন্টার ও আবাসিক হোটেলের ১১ তলায় এ রেস্তোরাঁ। অভিযানের সংবাদ পেয়ে ছুটে আসেন মালিক খন্দকার রুহুল আমিন। তবে পরিস্থিতি অনুকূলে নয় বুঝতে পেরে তিনি দ্রুত স্থান ত্যাগ করেন। এর আগে উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি তো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা করি। স্টাফরা কিছুটা নোংরা করেছে। এখন শাস্তি তো পেতেই হবে।’

ম্যাজিস্ট্রেট এ সময় রেস্টুরেন্টের রান্নাঘরে ঢুকে প্রস্তুত করা খাবারের পাশাপাশি বিভিন্ন মালপত্র পর্যবেক্ষণ করেন। দেখা যায়, রান্নাঘরের মেঝে নোংরা-আবর্জনাপূর্ণ। অপরিচ্ছন্ন জায়গাতেই রাখা হয়েছে ইফতারের জন্য প্রস্তুত করা নানা খাবার। সব কিছু মিলিয়ে অপরিচ্ছন্ন ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের কারণে ম্যানেজার জাফর ইকবালকে এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। কাপ্তানবাজারের মাংসের দোকানে মূল্য তালিকা রয়েছে কি না এবং নির্ধারিত দামে মাংস বিক্রি হচ্ছে কি না তা যাচাই করেন ম্যাজিস্ট্রেট। বিচ্যুতি ধরা না পড়ায় জরিমানা ও শাস্তির মুখোমুখি হননি।

আগোরাসহ ১০ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

মন্তব্য