kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

আশুলিয়ায় ট্রাকচাপায় শিক্ষার্থী বাসচাপায় গার্মেন্টকর্মী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আশুলিয়ায় ট্রাকচাপায় শিক্ষার্থী বাসচাপায় গার্মেন্টকর্মী নিহত

মা ও বোনের সঙ্গে নিহত ওয়ালি আল তাহসিন

রাজধানী ঢাকার উপকণ্ঠ আশুলিয়ায় নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কে পৃথক স্থানে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী এক কলেজ শিক্ষার্থী ও বাসচাপায় বাইসাইকেল আরোহী এক গার্মেন্ট শ্রমিক নিহত হয়েছে। ঘাতক ট্রাক ও বাসটি আটক করতে পারেনি পুলিশ। বুধবার সকালে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের সাভার ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড স্কুলসংলগ্ন এলাকায় কলেজ শিক্ষার্থী ও একই সড়কের গণকবাড়ী এলাকায় গার্মেন্ট শ্রমিক নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটে।

নিহত কলেজ শিক্ষার্থী ওয়ালি আল তাহসিন (১৮) সাভার ক্যান্টনমেন্ট এলাকার মর্নিং গ্লোরি স্কুল অ্যান্ড কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষে পড়ালেখা করত। সে আশুলিয়ার ডেণ্ডাবর এলাকার বাসিন্দা এবং সাভার সরকারি কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক আব্দুল কাদেরের ছেলে। এক ভাই দুই বোনের মধ্যে তাহসিন ছিল সবার বড়। নিহত ছমির মোল্লা নামে অপরজন ঢাকা রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকার (ডিইপিজেড) শাসা ডেনিম কারখানার শ্রমিক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার সকাল ৮টার দিকে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের সাভার ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড স্কুলসংলগ্ন এলাকায় মোটরসাইকেল আরোহী তাহসিন নামে এক যুবককে পেছন থেকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়  বেপরোয়া গতির একটি ট্রাক। মাথায় গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত অবস্থায় স্থানীয়রা তাত্ক্ষণিক তাকে সাভারের এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে তার মৃত্যু হয়। অপর দিকে, সকালে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের গণকবাড়ী ডিইপিজেডের সামনে বেপরোয়া গতির দূরপাল্লার একটি যাত্রীবাহী বাস বাইসাইকেল আরোহী ছমির মোল্লা নামে ওই গার্মেন্ট শ্রমিককে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায় সাভার হাইওয়ে থানা পুলিশ। সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ শিক্ষার্থী ও গার্মেন্ট শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা