kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

হাইকোর্টের প্রশ্ন

মশা নিধনের টাকা যায় কোথায়?

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাকা সিটি করপোরেশন এলাকায় মশা নিধনের জন্য বরাদ্দ করা কোটি কোটি টাকা কোথায় যায়, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, ‘মশার কামড়ে অসুস্থ হয়ে মানুষ হাসপাতালে যাচ্ছে। আপনারা তো নিয়মিত মশার ওষুধ ছিটান, কিন্তু কাজ হচ্ছে না কেন? অথচ মশার জন্য প্রতিবছর কোটি কোটি টাকা বরাদ্দ হয়। এই টাকা কোথায় যায়?’ বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল মঙ্গলবার এ প্রশ্ন তুলেছেন। রাজধানীর বায়ুদূষণ নিয়ে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) করা এক রিট আবেদনের ওপর শুনানিকালে এ প্রশ্ন তোলেন আদালত। রিটকারীর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ। 

হাইকোর্ট ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন এলাকায় বায়ুদূষণ রোধে সংস্কারকাজ চলছে এমন স্থান ঘেরাও করে কাজ করার বিষয়ে আদেশ প্রতিপালন করে জানাতে বলেছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও দুই সিটির নির্বাহী কর্মকর্তাদের। পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রতিবেদন দাখিল করলে তা দেখে গতকাল রিটকারীর আইনজীবী মনজিল মোরসেদ আদালতে বলেন, এই প্রতিবেদন অসম্পূর্ণ। দায়সারা গোছের। এতে শুধু কিছু প্রতিষ্ঠানকে নোটিশ করার কথা জানানো হয়েছে। এ সময় আদালত সিটি করপোরেশনের আইনজীবীকে উদ্দেশ করে প্রশ্ন করেন, মশা নিধনে বরাদ্দ টাকা কোথায় যায়। জবাবে আইনজীবী বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি।’ তখন আদালত বলেন, ‘মশা নিধনে আপনাদের পদক্ষেপ যথার্থ না। এসবে হবে না। দুর্নীতি কমান।’

ঢাকার বায়ুদূষণসংক্রান্ত বিষয়ে আগামী ৫ মার্চ পরবর্তী আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা