kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ নভেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নিজেদের ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে দ. কোরীয় শহরে আতঙ্ক

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৬ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উত্তর কোরিয়ার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জবাবে ছোড়া দক্ষিণ কোরিয়ার একটি ক্ষেপণাস্ত্র মাঝ আকাশে বিধ্বস্ত হয়ে নিজ ভূখণ্ডেই পড়ায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। ক্ষেপণাস্ত্রটির ধ্বংসাবশেষ পড়ে উপকূলীয় গ্যাংনিউং শহরে বিশাল অগ্নিকাণ্ডের সৃষ্টি হয়। এতে সেখানকার বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

পিয়ংইয়ং ও সিউলের পাল্টাপাল্টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের মধ্যে এই ঘটনা ঘটায় গ্যাংনিউং শহরের বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

এমনকি তাদের কেউ কেউ ধরে নেয়—দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে যুদ্ধ বেধে গেছে।

ব্যর্থ ক্ষেপণাস্ত্র উেক্ষপণের পর জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী। তবে ওই ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছে তারা।

গ্যাংনিউং শহরের অধিবাসীরা বলে, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে তারা উজ্জ্বল আলোর ঝলক দেখে এবং বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পায়।

দক্ষিণ কোরীয় সামরিক বাহিনী বলছে, উেক্ষপণের পরপরই তাদের হিউনমো-২ ক্ষেপণাস্ত্রে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয় এবং তা পড়ে গিয়ে বিধ্বস্ত হয়। তবে এটি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যৌথ মহড়ায় উৎক্ষেপণ করা হয়নি। ওই ক্ষেপণাস্ত্রে একটি যুদ্ধাস্ত্র থাকলেও তা বিস্ফোরিত হয়নি।

ক্ষেপণাস্ত্রটি বিধ্বস্ত হয়ে মাটিতে আছড়ে পড়ার পর সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডের ফুটেজ দক্ষিণ কোরীয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিও ফুটেজে ঘটনাস্থল গ্যাংনিউং শহরের একটি বিমানবাহিনী ঘাঁটির কাছে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। এই ফুটেজের সত্যতা যাচাই করা যায়নি।

২০১৭ সালের পর প্রথমবারের মতো গত মঙ্গলবার জাপানের ভূখণ্ডের ওপর দিয়ে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে উত্তর কোরিয়া। এ নিয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে পঞ্চমবারের মতো ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায় কিম জং উনের নেতৃত্বাধীন কট্টরপন্থী কমিউনিস্ট রাষ্ট্রটি। এর প্রতিক্রিয়ায় পাল্টা শক্তি প্রদর্শন করে পারস্পরিক মিত্র যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান।

এক যৌথ সামরিক মহড়ায় কোরীয় উপদ্বীপ ও জাপানের মধ্যবর্তী পূর্ব সাগরে (জাপান সাগর) একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে ওয়াশিংটন ও সিউল।

গত মাসে নিজেদের পারমাণবিক অস্ত্রধারী রাষ্ট্র ঘোষণা করে আইন পাস করে উত্তর কোরিয়া। পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে আলোচনার ব্যাপারেও অনাগ্রহ দেখাচ্ছেন দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন। সূত্র : বিবিসি, এএফপি

 

 



সাতদিনের সেরা