kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাজস্থান কংগ্রেসে কোন্দল

শচিনের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ গহলৌতের

চিঠি ফাঁস

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শচিনের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ গহলৌতের

ছবি : এনডিটিভি

ভারতের রাজস্থান রাজ্য কংগ্রেসে নিজের প্রতিদ্বন্দ্বী শচিন পাইলট সম্পর্কে সোনিয়া গান্ধীর কাছে নানা অভিযোগ করেছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত। কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে গহলৌত ছিটকে যাওয়ার পর দলের অন্তর্বর্তী সভাপতির উদ্দেশে তাঁর ওই চিঠি প্রকাশ্যে এসেছে।

শনিবার ভারতের বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম ওই চিঠির কয়েকটি ছবি প্রকাশ করে। তবে কোনো পক্ষ থেকেই তাৎক্ষণিকভাবে চিঠির সত্যতা স্বীকার করা হয়নি।

বিজ্ঞাপন

কংগ্রেসের সভাপতি হলে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছাড়তে হবে এবং সে পদে শচিন পাইলট আসতে পারেন—এই গুঞ্জনের পরিপ্রেক্ষিতে বিদ্রোহী হয়ে ওঠেন গহলৌত অনুসারী নব্বই জনেরও বেশি বিধায়ক। এতে ক্ষুব্ধ হন সোনিয়া গান্ধী। শেষ পর্যন্ত গত বৃহস্পতিবার সোনিয়ার সঙ্গে বৈঠকে গহলৌত বিদ্রোহের দায় কাঁধে নিয়ে ক্ষমা চান এবং মুখ্যমন্ত্রিত্ব পদ ধরে রাখার আগ্রহ দেখান।  

ফাঁস হওয়া চিঠিতে শচিন পাইলটকে ‘এসপি’ বলে সম্বোধন করা হয়। এতে গহলৌত দাবি করেন, তাঁর সঙ্গে ১০২ জন বিধায়কের সমর্থন রয়েছে এবং এসপির দিকে মাত্র ১৮ জন বিধায়ক রয়েছেন। চিঠিতে আরো বলা হয়, এসপি রাজনৈতিক লাভের জন্য দল ছাড়তেও পারেন।

চিঠিতে গহলৌত অভিযোগ করেন, শচিন পাইলট বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়ে অর্থের বিনিময়ে কংগ্রেসের সরকারকে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। দলের বিধায়কদের বিদ্রোহ প্রসঙ্গে ওই চিঠিতে গহলৌত বলেন, যা হয়েছে তার জন্য তিনি দুঃখিত।

প্রতিদ্বন্দ্বিতায় খারগে

এদিকে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে কংগ্রেসের সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কর্ণাটকের কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খারগে। নিম্নবর্ণের দলিত সম্প্রদায়ের এই নেতা এরই মধ্যে রাজ্যসভার দলনেতার পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। অর্থাৎ কংগ্রেসের সভাপতি পদে তাঁর সঙ্গে লোকসভার সংসদ সদস্য শশী থারুরের লড়াই হবে। সূত্র : এনডিটিভি

 

 



সাতদিনের সেরা