kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আশ্বাস

যুক্ত করে নেওয়া ইউক্রেনের অঞ্চল মস্কোর ‘সুরক্ষা’ পাবে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্ত করে নেওয়া ইউক্রেনের অঞ্চল মস্কোর ‘সুরক্ষা’ পাবে

গণভোটের মাধ্যমে ইউক্রেনের কোনো অঞ্চল রাশিয়ায় যোগ দিলে তাকে ‘সম্পূর্ণ সুরক্ষা’ দেবে মস্কো। সে অঞ্চলের সুরক্ষায় পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারেও রাশিয়া পিছপা হবে না।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বক্তব্য দেওয়ার পর শনিবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এমন ইঙ্গিতই দিয়েছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ।

পূর্ব ইউক্রেনের চার অঞ্চলে রাশিয়ার আয়োজিত পাঁচ দিনব্যাপী গণভোটের তৃতীয় দিন ছিল গতকাল রবিবার।

বিজ্ঞাপন

পশ্চিমারা এর নিন্দা করে বলেছে, ভূখণ্ড দখলের লক্ষ্যে আগে থেকেই এই ভোটের ফল ঠিক করে রেখেছে রাশিয়া।

বিতর্কিত গণভোট শেষ হওয়ার কয়েক দিনের মধ্যেই সংশ্লিষ্ট ইউক্রেনীয় ভূখণ্ডের রাশিয়ায় অন্তর্ভুক্তিকে স্বীকৃতি দিতে পারে  দেশটির আইনসভা।

সংযুক্ত করে নেওয়া ইউক্রেনীয় অঞ্চলের সুরক্ষায় রাশিয়ার পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার যৌক্তিক কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ বলেন, রাশিয়ার ভূখণ্ড, এমনকি ভবিষ্যতে রুশ সংবিধানে উল্লেখ করা ‘বাড়তিভাবে সুরক্ষিত’ অঞ্চলও ‘রাষ্ট্রের পূর্ণ সুরক্ষার অধীনে’ থাকবে।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রি কুলেবা বলেছেন, রাশিয়ার সম্ভাব্য পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের হুঁশিয়ারি ‘একেবারেই অগ্রহণযোগ্য’ এবং কিয়েভ এর সামনে কখনো মাথা নত করবে না।

রাশিয়ায় নতুন করে বিক্ষোভ

ইউক্রেনে তিন লাখ অতিরিক্ত রিজার্ভ সেনা পাঠানোর ঘোষণায় রাশিয়ায় নতুন করে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। অনেক সামরিক প্রশিক্ষণ পাওয়া পুরুষ যুদ্ধে যাওয়া থেকে রেহাই পেতে দেশত্যাগের পাশাপাশি নিজে থেকে শরীরে আঘাত করে আহত হচ্ছেন। আর জনগণের মধ্য থেকে শুরু হয়েছে রিজার্ভ সেনাদের যুদ্ধে পাঠানোর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ। রুশ মানবাধিকার সংগঠন ওভিডি-ইনফোর দেওয়া তথ্যানুসারে, বিক্ষোভ থেকে শনিবার সাত শরও বেশি লোককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর আগে সপ্তাহের শুরুতে আটক হয় এক হাজারেরও বেশি মানুষ।

রুশ সেনাদের জেলেনস্কির প্রতিশ্রুতি

আত্মসমর্পণকারী রাশিয়ার সেনাদের সঙ্গে ‘সভ্য আচরণ’ করা হবে বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট  ভোলোদিমির জেলেনস্কি। নিজের নিয়মিত রাতের ভাষণে পালিয়ে যাওয়া ও আত্মসমর্পণে আগ্রহী রুশ সেনাদের প্রতি এ কথা বলেন তিনি।

রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন অতি সম্প্রতি নির্দেশ অমান্যকারী এবং পক্ষ ত্যাগকারী সেনার শাস্তি দ্বিগুণ করে নতুন এক আইনে স্বাক্ষর করেছেন।

সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স



সাতদিনের সেরা