kalerkantho

সোমবার । ২৮ নভেম্বর ২০২২ । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আলজাজিরার বিশ্লেষণে আভাস

ডানদের জয়ে মস্কোমুখী হবে রোম

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডানদের জয়ে মস্কোমুখী হবে রোম

ইতালির সাধারণ নির্বাচন ঘিরে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রচারের শেষ দিন ছিল গতকাল। এদিন রাজধানী রোমে উৎসবমুখর মিছিলে মধ্য বামপন্থী ডেমোক্রেটিক পার্টির একাংশ। ছবি : এএফপি

ইতালির পার্লামেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হবে আজ রবিবার। জনমত জরিপ অনুযায়ী এই নির্বাচনে ডানপন্থীদের জয় পাওয়ার সম্ভাবনা খুব বেশি। অতীত ইতিহাস ও সম্পর্ক বিচার করে ডানপন্থীদের জয় দেশটিকে পুতিনের রাশিয়ার দিকে ঠেলে দেয় কি না—এ প্রশ্ন তোলা হয়েছে আলজাজিরার বিশ্লেষণে।

২০১৮ সালে ভ্লাদিমির পুতিন চতুর্থ মেয়াদে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে তাঁকে অভিনন্দন জানিয়ে ডানপন্থী ব্রাদার্স অব ইতালি দলের প্রধান জর্জিয়া মেলোনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছিলেন, রাশিয়ার এই নির্বাচন জনগণের ইচ্ছার দ্ব্যর্থহীন প্রতিফলন।

বিজ্ঞাপন

মেলোনির সেই বক্তব্য তাঁর এবারের নির্বাচনী প্রচারণার সময় আবারও সামনে এসেছে। কারণ আসন্ন নির্বাচনের পর তিনিই ইতালির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন।

নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি আসন পেতে পারে মেলোনির নেতৃত্বাধীন ব্রাদার্স অব ইতালি। মাত্তেও সালভিনির লিগা নর্দ এবং সিলভিও বেরলুসকোনির ফোরজা ইতালিয়াকে নিয়ে ডানপন্থী সরকার গঠন করতে পারে দলটি। ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন বন্ধে ইউরোপের সর্বাত্মক প্রচেষ্টার মধ্যে ক্রেমলিনের ঐতিহ্যগত মিত্র এই দলগুলোর সঙ্গে জোটের সম্ভাবনা রোমকে মস্কোর ঘনিষ্ঠ করে তুলতে পারে—এমন আশঙ্কা বাড়িয়ে দিয়েছে।

মেলোনির মূল প্রতিদ্বন্দ্বী মধ্য-বাম ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা এনরিকো লেত্তা সতর্ক করে বলেন, জর্জিয়া মেলোনি জয় পেলে আন্তর্জাতিক মহলে খুশি হবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, ভ্লাদিমির পুতিন এবং ইউরোপের ভিক্টর ওরবান।

হাঙ্গেরির জাতীয়তাবাদী প্রধানমন্ত্রী ওরবানের মস্কোর সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের জন্য পরিচিত।

অন্যদিকে ইউক্রেন যুদ্ধের বিষয়ে রাশিয়ার নিন্দা করে এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও সামরিক জোট ন্যাটোর সঙ্গে সম্পর্কের ওপর জোর দিয়ে মস্কোর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা নিয়ে পশ্চিমাদের উদ্বেগ প্রশমনের চেষ্টা করেছেন মেলোনি। ইউক্রেন যুদ্ধে ইতালির অবস্থানে ব্রাদার্স অব ইতালির কোনো অস্পষ্টতা নেই বলেই দাবি করেছেন তিনি।

 ডানপন্থীদের রাশিয়ার প্রতি ঘনিষ্ঠতার প্রশ্ন ওঠার আরো এক কারণ অতীত ইতিহাস। সম্ভাব্য ডান জোটের মিত্রদের বিরুদ্ধে ক্রেমলিন থেকে অবৈধ তহবিল নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। ২০১৯ সালে মস্কোয় গোপন তেলবিষয়ক আলাপ নিয়ে মাত্তেও সালভেনির এক সহযোগীর অডিও ফাঁস হয়। তবে কোনো অনিয়ম করার বিষয়টি অস্বীকার করে আসছেন তিনি।

ফোরজা ইতালিয়া দলের প্রধান সাবেক প্রধানমন্ত্রী সিলভিও বেরলুসকোনিকেও পুতিনের বন্ধু মনে করা হয়। দুজন একে অন্যের অবকাশযাপনের বাড়িতে থেকেছেন। সূত্র : আলজাজিরা

 



সাতদিনের সেরা