kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

যুক্তরাষ্ট্রে ফের মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্য ভাঙচুর

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২০ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে একটি হিন্দু মন্দিরের বাইরে মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্য ভাঙচুর করা হয়েছে। এই ঘটনাকে বিদ্বেষপ্রসূত অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করে তদন্ত করছে পুলিশ। দুই সপ্তাহ আগে এই একই ভাস্কর্যে হামলার ঘটনা ঘটেছিল বলে জানান সংশ্লিষ্ট তদন্ত কর্মকর্তা।   

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, গত মঙ্গলবার এক ব্যক্তি বড় একটি হাতুড়ি দিয়ে ভাস্কর্য ভাঙচুর করছেন।

বিজ্ঞাপন

পুরোপুরি ভাঙার আগে ভাস্কর্যটির মাথা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়। কয়েক মিনিট পরে ছয়জনের একটি দল এসে ভাস্কর্যটি পা দিয়ে মাড়িয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় এখনো কাউকে শনাক্ত করা যায়নি।

দক্ষিণ রিচমন্ড হিলে অবস্থিত শ্রী তুলসী মন্দিরের প্রতিষ্ঠাতা লাখরাম মহারাজ বলেন, ‘এভাবে আমাদের (এশীয়দের) বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লাগা খুবই বেদনাদায়ক। ’ গত বুধবার সকালে মহারাজই মহাত্মা গান্ধীর বিধ্বস্ত ভাস্কর্যটি প্রথম দেখতে পান। এ ছাড়া মন্দিরের সামনে এবং ব্লকের নিচে ‘কুকুর’ শব্দটি স্প্রে করে আঁকা ছিল।

নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্য পরিষদের সদস্য ভারতীয় বংশোদ্ভূত জেনিফার রাজকুমার বলেন, ‘যখন মহাত্মা গান্ধীর মতো ব্যক্তিত্বের ভাস্কর্য নষ্ট করা হয়, তখন তা আমাদের বিশ্বাসে আঘাত করে এবং একটি সম্প্রদায়ের জন্য হতাশাজনকও। ’

মার্কিন গণমাধ্যমে বলা হয়, ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনাকে বিদ্বেষপ্রসূত অপরাধ ধরে নিয়ে তদন্ত করছে নিউ ইয়র্ক পুলিশ। লাখরাম মহারাজ বলেন, ‘অনেকেই এখন মন্দিরে যেতে ভয় পাচ্ছে। আমি যে চিন্তিত তা দেখাতে পারছি না। কারণ আমি শক্ত না হলে বাকিরা কিভাবে স্থির থাকবে?’ মন্দির কর্তৃপক্ষ এই ভাস্কর্য প্রতিস্থাপনের সামর্থ্য রাখে না বলেও জানান তিনি। কারণ হাতে তৈরি এই ভাস্কর্যের দাম প্রায় চার হাজার ডলার। মহারাজ বলেন, ‘আমি শুধু জানতে চাই কেন এই এই ভাস্কর্য ধ্বংস করা হলো। ’

গত ফেব্রুয়ারিতে ম্যানহাটানে মহাত্মা গান্ধীর আট ফুট উচ্চতার এক ভাস্কর্য নষ্ট করা হয়। ২০২০ সালে ওয়াশিংটনে ভারতীয় দূতাবাসের সামনের গান্ধীর ভাস্কর্য নষ্ট করা হয়েছিল। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া



সাতদিনের সেরা