kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০২২ । ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রীদের সম্পত্তি খতিয়ে দেখার আরজি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৯ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নেতা-মন্ত্রীদের সম্পত্তি বৃদ্ধির বিষয়টি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে দিয়ে খতিয়ে দেখার আবেদন করা হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে। গতকালের এই আরজির পর মামলায় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেটকেও (ইডি) যুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব এবং বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে এই আরজি জানান আইনজীবী শামিম আহমেদ। হাইকোর্টে ১৯ নেতা-মন্ত্রীর একটি তালিকাসহ তাঁদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির হিসাব দিয়ে শামিম বলেন, ২০১১ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত এই নেতা-মন্ত্রীদের সম্পত্তি বিপুল পরিমাণে বেড়েছে।

বিজ্ঞাপন

পাঁচ বছরে তাঁদের সম্পত্তি কিভাবে এত বাড়ল, তা ইডিকে দিয়ে খতিয়ে দেখার আবেদন করেন তিনি। এর পরিপ্রেক্ষিতেই ইডিকে ওই মামলায় যুক্ত করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

আদালতে যে ১৯ নেতা-মন্ত্রীর সম্পত্তি খতিয়ে দেখার আবেদন করা হয়েছে, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন ফিরহাদ হাকিম, ব্রাত্য বসু, মলয় ঘটক, শিউলি সাহা, অমিত মিত্র, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মতো সুপরিচিত রাজনীতিক। তালিকায় রয়েছে বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামও।

শামিম আদালতকে বলেছেন, এঁদের অনেকেরই ব্যক্তিগত সম্পত্তি বিপুল পরিমাণে বেড়েছে। অনেক ক্ষেত্রে আবার এঁদের স্ত্রীরা তেমনভাবে কোনো পেশার সঙ্গে যুক্ত না হওয়া সত্ত্বেও তাঁদের সম্পত্তি পাঁচ বছরে বৃদ্ধি পেয়েছে ২৫০ শতাংশের বেশি।

রাজ্যের নেতা-মন্ত্রীদের সম্পত্তি বৃদ্ধি নিয়ে ২০১৭ সালে একটি জনস্বার্থ মামলা করা হয়েছিল আদালতে। সেই মামলার সূত্রেই আদালতে নতুন করে এই আরজি জানিয়েছেন আইনজীবী শামিম। তাঁর দেওয়া তালিকায় আরো যেসব নেতা-মন্ত্রীর নাম রয়েছে তাঁরা হলেন গৌতম দেব, ইকবাল আহমেদ, স্বর্ণকমল সাহা, অরূপ রায়, জাভেদ আহমেদ খান, আব্দুর রেজ্জাক মোল্লা, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও সব্যসাচী দত্ত। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

 



সাতদিনের সেরা