kalerkantho

শনিবার । ২০ আগস্ট ২০২২ । ৫ ভাদ্র ১৪২৯ । ২১ মহররম ১৪৪৪

উজবেকিস্তানে সংঘাতে নিহত ১৮ জরুরি অবস্থা জারি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৫ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উজবেকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের স্বায়ত্তশাসিত কারাকালপাকস্তানে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘাতের ঘটনায় অন্তত ১৮ জন নিহত হয়েছে। বিক্ষোভ চলাকালে ২৪৩ জন আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে ৯৪ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংবিধান সংশোধনীর মাধ্যমে কারাকালপাকস্তানের স্বায়ত্তশাসনসংক্রান্ত মর্যাদা প্রত্যাহারের পরিকল্পনা প্রকাশের জেরে এই বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

এরই মধ্যে অঞ্চলটিতে মাসব্যাপী জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। পুলিশ ও সেনাবাহিনী নুকুশ শহরের রাস্তায় টহল দিচ্ছে। গতকাল সোমবার এক ব্রিফিংয়ে কথা বলছিলেন কারাকালপাকস্তানের স্টেট প্রসিকিউটর কার্যালয়ের কর্মকর্তা আবরর মামাতভ। তাঁকে উদ্ধৃত করে রুশ বার্তা সংস্থা রিয়া নভোস্তি বলেছে, নুকুশে হওয়া বড় ধরনের সংঘর্ষে মারাত্মভাবে আহত হয়ে ১৮ জন নিহত হয়েছে।

কারাকালপাকস্তানের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেওয়ার জন্য সংবিধান সংশোধনীর যে খসড়া প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল সেখান থেকে এরই মধ্যে সরে এসেছেন উজবেকিস্তানের প্রেসিডেন্ট শাভাকাত মির্জিওয়েভ। ২০১৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর এই সংঘাতের কারণে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছেন ৬৪ বছর বয়সী মির্জিওয়েভ গত রবিবার দুই দিনের মধ্যে দ্বিতীয় দফায় কারাকালপাকস্তান সফর করেন প্রেসিডেন্ট। ‘মিথ্যা স্লোগান’ দেওয়া এবং ‘জোরপূর্বক সরকারি সংস্থার ভবন দখলের’ চেষ্টা করার জন্য তিনি বিক্ষোভ সংগঠকদের দায়ী করেন।

আইন প্রণেতা ববুর বেকমুরোদভ এক টুইট বার্তায় লেখেন, আইনটির খসড়া নিয়ে গণ-আলোচনার জন্য ১০ দিন মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। সূত্র : এএফপি, বিবিসি

 



সাতদিনের সেরা