kalerkantho

শুক্রবার । ১২ আগস্ট ২০২২ । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৩ মহররম ১৪৪৪

চীনকে টেক্কা দেওয়াই মূল লক্ষ্য

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চীনকে টেক্কা দেওয়াই মূল লক্ষ্য

জার্মানির বাভারিয়ায় জি৭ নেতাদের গতকালের বৈঠকে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে যোগ দেন ইউক্রেনের রাষ্ট্রপ্রধান। ছবি : এএফপি

আগেরবারের শীর্ষ সম্মেলনে অর্থের অঙ্কের ব্যাপারে একমত হয়েছিলেন জি৭ নেতারা, এবার সেই অর্থ কিভাবে ব্যয় করা হবে সে ব্যাপারে নিজেদের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছেন তাঁরা। আর এসবের একটাই লক্ষ্য—চীনের বিপুল অঙ্কের প্রকল্প বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের (বিআরআই) বিপরীতে নিজেদের শক্ত অবস্থান নিশ্চিত করা।

বিশ্বের শীর্ষ ধনী দেশের জোট জি৭-এর নেতারা গত বছর লন্ডনে সিদ্ধান্ত নেন, চীনের বিশ্বজোড়া বিআরআই প্রকল্পের বিপরীতে নিজেদের প্রকল্প দাঁড় করাতে তাঁরা ৬০ হাজার কোটি মার্কিন ডলার ব্যয় করবেন। এবার জার্মানিতে শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নিয়ে তাঁরা ওই বিশাল অঙ্কের অর্থ ব্যয়ের খাতগুলো চূড়ান্ত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

গত রবিবার শুরু হওয়া সম্মেলনটি শেষ হচ্ছে আজ মঙ্গলবার।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, আগামী পাঁচ বছরে ৬০ হাজার কোটি ডলারের তহবিল জোগাড় করার পরিকল্পনা করেছেন জি৭ নেতারা। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র দেবে ২০ হাজার কোটি ডলার এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) দেবে ৩০ হাজার কোটি ডলার। নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোয় এ অর্থ ব্যয় করা হবে। আর এসব অর্থ কাজে লাগানো হবে জলবায়ু পরিবর্তন, স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়ন, নারী-পুরুষের সমতা অর্জন এবং ডিজিটাল অবকাঠামো নির্মাণ খাতে।

যেসব প্রকল্পে জি৭ অর্থ দিতে চায় সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো অ্যাঙ্গোলায় সৌরবিদ্যুত্চালিত একটি প্রকল্প, সেনেগালে প্রতিষেধক উৎপাদনকারী অবকাঠামো এবং সিঙ্গাপুর থেকে মিসর ও ‘হর্ন অব আফ্রিকা’ হয়ে ফ্রান্স পর্যন্ত এক হাজার ৬০৯ কিলোমিটার সাবমেরিন কেবল স্থাপন প্রকল্প।

বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন প্রকল্পে জি৭ নেতাদের অর্থ ব্যয়ের পরিকল্পনা মানে দানছত্র নয়, সেটা অবশ্য স্পষ্ট করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, ‘আমি স্পষ্ট করে বলছি, এটি কোনো সহায়তা বা দান নয়। এটি একটি বিনিয়োগ, যেটির প্রতিদান প্রত্যেকে পাবে। ’ প্রত্যেকের বলতে তিনি যে ‘গণতন্ত্রের অংশীদারদের’ বুঝিয়েছেন, সেটাও উল্লেখ করেছেন।

সম্মেলনে ভাষণ দিলেন জেলেনস্কি

জি৭-এর সদস্য না হলেও নেতাদের আমন্ত্রণে সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কি। ভিডিও লিংকের মাধ্যমে সম্মেলনে যুক্ত হয়ে তিনি এ বছর শীত আসার আগেই ইউক্রেনে রুশ অভিযানের অবসান ঘটানোর জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে জি৭ নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান।

সম্মেলনে ভাষণ দেওয়ার পর জেলেনস্কি নিজের টেলিগ্রাম অ্যাকাউন্টে লেখেন, ‘(রাশিয়ার ওপর) নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার ব্যাপারে জি৭ভুক্ত দেশগুলোর দৃঢ় অবস্থান আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। হামলাকারীদের রপ্তানি করা তেলের মূল্য সীমিত করার মধ্য দিয়ে অবশ্যই নিষেধাজ্ঞা জোরদার করতে হবে। ’

জেলেনস্কির আহ্বানের জবাবে জি৭ নেতারা ইউক্রেনের প্রতি সব ধরনের সমর্থন ও সহায়তা অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার করেন। সূত্র : এএফপি, বিবিসি

 

 



সাতদিনের সেরা