kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ আগস্ট ২০২২ । ১ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৭ মহররম ১৪৪৪

গর্ভপাত ক্লিনিক বন্ধ হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গর্ভপাত ক্লিনিক বন্ধ হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে

যুক্তরাষ্ট্রে গর্ভপাতসংক্রান্ত সাংবিধানিক অধিকারের বিধান বাতিল করে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের প্রতিবাদে নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটানে বিক্ষোভ করেন অধিকারকর্মীরা। ছবি : এএফপি

গর্ভপাত মার্কিন নারীদের সাংবিধানিক অধিকার নয় বলে গত শুক্রবার রায় দিয়েছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। এ রায়ের ফলে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে গর্ভপাত করানোর ক্লিনিকগুলো বন্ধ হতে শুরু করেছে। এখন দেশটিতে কয়েক কোটি প্রজননক্ষম নারী গর্ভপাতের সাংবিধানিক অধিকার হারাবেন। গর্ভপাতবিরোধীরা একে বিপুলভাবে স্বাগত জানিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে গর্ভপাতের অধিকারের পক্ষের আন্দোলনকর্মীরা এ রায়ের নিন্দা করেছেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এই রায়কে ‘দুঃখজনক ভুল’ আখ্যা দিয়ে বলেন, এ রায়ের ফলে নারীদের স্বাস্থ্য ও জীবন ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। রায়ের সমালোচনা করে অঙ্গরাজ্যগুলোকে গর্ভপাতের অনুমোদন দিয়ে আইন করার আহ্বান জানিয়েছেন বাইডেন। তিনি বলেন, গর্ভপাত বৈধ এমন রাজ্যগুলোতে যেতে নারীরা যেন বাধার সম্মুখীন না হয়, তা নিশ্চিতে কাজ করবেন তিনি।

এদিকে গর্ভপাতের জন্য অন্য অঙ্গরাজ্য থেকে আসা নারীদের নিরাপত্তা দেওয়ার অঙ্গীকার করেছেন ক্যালিফোর্নিয়া, ওয়াশিংটন ও ওরেগন অঙ্গরাজ্যের গভর্নররা।

শীর্ষ আদালতেরই পাঁচ দশক পুরনো এক আলোচিত রায় (রো বনাম ওয়েড) উল্টে দেওয়ার ফলে দেশটির প্রায় অর্ধেক অঙ্গরাজ্যে নতুন বিধি-নিষেধ বা নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে। এরই মধ্যে ১৩টি অঙ্গরাজ্যে তথাকথিত এই আইন বাস্তবায়নে কাজ শুরু হয়ে গেছে। আগামী ৩০ দিনের মধ্যে সেখানে গর্ভপাত নিষিদ্ধ হয়ে যাবে।

এদিকে আরকানসাস অঙ্গরাজ্যে তাত্ক্ষণিকভাবে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়ে গেছে। সুপ্রিম কোর্টের রায় অনলাইনে পোস্ট হওয়ার পর লিটল রক এলাকার একটি ক্লিনিকে রোগীদের গর্ভপাতসংক্রান্ত সেবা দেওয়া বন্ধ করেছে কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালের কর্মীরা রোগীদের ফোন করে পূর্বনির্ধারিত সাক্ষাৎ বাতিল করছে।

লুইজিয়ানা অঙ্গরাজ্যে মাত্র তিনটি গর্ভপাত ক্লিনিক আছে। তাত্ক্ষণিকভাবে রায় কার্যকর হওয়ায় গত শুক্রবার একটি ক্লিনিক বন্ধ করে বাড়ি চলে গেছেন কর্মীরা।

স্বাস্থ্যসেবা সংস্থা হেলথ প্ল্যানড প্যারেন্টহুডের গবেষণা বলছে, সুপ্রিম কোর্টের রায়ের ফলে প্রায় তিন কোটি ৬০ লাখ নারী নিজেদের অঙ্গরাজ্যে গর্ভপাতের অধিকার হারাবেন।

রক্ষণশীল রিপাবলিকান নেতা সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স প্রতিটি অঙ্গরাজ্যে আইন দ্বারা ‘জীবনের পবিত্রতা’ সুরক্ষিত না হওয়া পর্যন্ত সমর্থকদের না থামার পরামর্শ দিয়েছেন। অন্যদিকে বিপরীত শিবিরে থাকা স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি বলেছেন, রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত সুপ্রিম কোর্ট দলটির ‘অন্ধকার এবং চরম লক্ষ্য’ বাস্তবায়ন করেছে। সূত্র : বিবিসি



সাতদিনের সেরা