kalerkantho

রবিবার । ১৪ আগস্ট ২০২২ । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৫ মহররম ১৪৪৪

অর্থনৈতিক সংকট

মুদ্রাস্ফীতির নতুন রেকর্ড শ্রীলঙ্কায়

এ বছরের মে মাসে বিগত বছরের একই সময়ের তুলনায় কলম্বো কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স (সিসিপিআই) বেড়েছে ৩৯.১ শতাংশ, যা গত এপ্রিলে ছিল ২৯.৮ শতাংশ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অর্থনৈতিক সংকটে বিপর্যস্ত শ্রীলঙ্কা মে মাসে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতির রেকর্ড স্পর্শ করেছে। এ নিয়ে টানা আট মাস এই ধারা অব্যাহত থাকল। গতকাল বুধবার সরকারি তথ্য-উপাত্তে এ তথ্য জানা গেছে।

দ্বীপ দেশটির পরিসংখ্যান দপ্তর থেকে জানানো হয়, এ বছরের মে মাসে বিগত বছরে একই সময়ের তুলনায় কলম্বো কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স (সিসিপিআই) বেড়েছে ৩৯.১ শতাংশ, যা গত এপ্রিলে ছিল ২৯.৮ শতাংশ।

বিজ্ঞাপন

খাদ্যে মূল্যস্ফীতি কলম্বোতে এখন ৫৭.৪ শতাংশে দাঁড়িয়েছে, যা গত এপ্রিল মাসে ছিল ৪৬.৬ শতাংশ।

গত মে মাসে মূল্যস্ফীতির সামগ্রিক হিসাবে সারা দেশে অন্যতম দুষ্প্রাপ্য পণ্য জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি অন্তর্ভুক্ত হয়নি। বেসরকারি অর্থনীতিবিদরা বলছেন, ভোগ্য পণ্যের দাম সরকারি নথিতে উল্লিখিত পরিস্থিতির চেয়েও দ্রুত বাড়ছে। জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন বিশ্লেষক বলেন, গত মার্চ মাসে মূল্যস্ফীতি ১৩৩ শতাংশ ছিল, যা সরকারি তথ্যের চেয়ে ছয় গুণ বেশি।

আমদানিনির্ভর শ্রীলঙ্কার অর্থনীতি ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়ে বৈদেশিক মুদ্রার ঘাটতির কারণে। এতে উদ্ভূত পরিস্থিতি খাদ্য, ওষুধ ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য আমদানি কঠিন করে তোলে। পরিস্থিতি সামাল দিতে শ্রীলঙ্কার নতুন সরকার গত মঙ্গলবার সবার কাছ থেকে কর সংগ্রহ শুরু করেছে। ২০১৯ সালে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে ব্যাপক হারে কর অব্যাহতি দিয়েছিল।

স্বাধীন হওয়ার পর এবারই সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে পড়েছে শ্রীলঙ্কা। সংকট এতটাই তীব্র হয়ে ওঠে যে দ্রুত তা রাজনৈতিক সংকটে রূপ নেয়। চরম বিক্ষোভ আর সহিংসতার মুখে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে। তবে তাতে সন্তুষ্ট নন রাজাপক্ষে পরিবারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভকারীরা। তারা প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছে।

এর মধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন রনিল বিক্রমাসিংহে। সংকটে পড়ে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বও নিতে হয় তাঁকেই। দেশবাসীকে আরো কঠিন পথ পাড়ি দিতে হবে, এমন সতর্কবার্তা দিয়ে নিজের কাজ শুরু করেন তিনি। চলমান সংকট কাটিয়ে ওঠার জন্য তিনি সর্বশেষ যেসব প্রস্তাব করেছেন, সেগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পেয়েছে সংসদের কাছে প্রেসিডেন্টের জবাবদিহি এবং সংসদীয় কমিটিতে তরুণদের অংশগ্রহণ। সূত্র : এএফপি

 

 



সাতদিনের সেরা