kalerkantho

বুধবার ।  ২৫ মে ২০২২ । ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩  

বিজেপির কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মন্তব্য

সমাজবাদী পার্টিতে যাওয়া নেতারা সব ‘দাঙ্গাবাজ’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৭ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিজেপির কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর গতকাল রবিবার বলেছেন, উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনের আগে অখিলেশ যাদবের নেতৃত্বাধীন সমাজবাদী পার্টিতে যোগ দেওয়া রাজনৈতিক নেতারা ‘দাঙ্গাবাজ’। তিনি বলেন, ‘যারা দাঙ্গা করে তারা সমাজবাদী পার্টিতে যোগ দেয়, আর যারা দাঙ্গাকারীদের ধরে তারা বিজেপিতে যোগ দেয়...। ’

কানপুরের সাবেক পুলিশ কমিশনার অসীম অরুণের বিজেপিতে যোগদান অনুষ্ঠানে সমাজবাদী পার্টি ও দলত্যাগীদের সমালোচনা করেন অনুরাগ ঠাকুর। ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই এ কথা জানিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজেপির সাবেক বিধায়ক দারা সিং চৌহানের সমাজবাদী পার্টিতে যোগদানের কয়েক ঘণ্টা পর এ মন্তব্য করেন অনুরাগ ঠাকুর। দারা সিং যোগী আদিত্যনাথ সরকারে পাঁচ বছর পরিবেশমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন।

চলতি সপ্তাহে উত্তর প্রদেশের আরো দুজন সাবেক মন্ত্রী স্বামী প্রসাদ মৌর্য ও ধরম সিং সমাজবাদী পার্টিতে যোগ দেন। সমাজবাদী পার্টিতে যোগ দেওয়া সাবেক বিধায়ক বিনয় শাক্য, রোশন লাল ভার্মা, মুকেশ ভার্মা ও ভগবতী সাগরও ২০১৭ সাল থেকে যোগী আদিত্যনাথ সরকারে ছিলেন।

অনুরাগ ঠাকুর উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে সমাজবাদী পার্টির প্রার্থীদের তালিকা নিয়েও উপহাস করেন। তিনি বলেন, দলটির তালিকার প্রথমজন জেলে এবং দ্বিতীয়জন জামিনে। অনুরাগ বলেন, ‘সমাজবাদী পার্টির আসল খেলা হলো, তাদের প্রার্থীরা হয় জেলে নয়তো জামিনে। ’

সমাজবাদী পার্টির কারাগারে থাকা প্রার্থী হলেন নাহিদ হাসান, যিনি কাইরানার বর্তমান বিধায়ক। তাঁর বিরুদ্ধে সহিংসতাসংশ্লিষ্ট একটি মামলা রয়েছে। সম্প্রতি মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার হওয়ার পর সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব হাসানের মনোনয়ন বাতিল করেছেন। হাসানকে গ্রেপ্তার করার ঘটনাটিকে তিনি জয়ের জন্য বিজেপির ‘মরিয়া প্রচেষ্টা’ বলে অভিহিত করেছেন।

প্রায় ১২ জন বিধায়ক চলতি সপ্তাহে বিজেপি থেকে বেরিয়ে গেছেন। ১০ ফেব্রুয়ারি উত্তর প্রদেশ বিধানসভায় ভোট শুরু হবে। সূত্র : এনডিটিভি



সাতদিনের সেরা