kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ মাঘ ১৪২৮। ২৫ জানুয়ারি ২০২২। ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

নিপীড়নের অভিযোগে অস্ট্রেলিয়ার মন্ত্রীর সাময়িক পদত্যাগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘নিপীড়নমূলক’ বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ ওঠায় পদ থেকে সাময়িকভাবে সরে দাঁড়াতে হলো অস্ট্রেলিয়ার এক মন্ত্রীকে। র‌্যাচেল মিলার নামের এক সাবেক কর্মী ওই মন্ত্রীর বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন। এলেন টাজ নামের ওই মন্ত্রী ২০১৭ সালে শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন।  

মিলার অভিযোগ করেন, টাজের সঙ্গে সম্পর্ক থাকাকালে তাঁকে বুলিং ও ভয় দেখানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শিক্ষামন্ত্রী টাজের প্রেস সেক্রেটারি ছিলেন মিলার। সে সময় তাঁরা দুজনের সম্মতিতেই সম্পর্কে জড়ান এবং এক বছর আগে তাঁদের সম্পর্ক প্রকাশ্যে আসে। কিন্তু গতকাল বৃহস্পতিবার তাঁদের সম্পর্কের আরো অনেক বিষয় সামনে চলে আসে।

মিলার বলেন, তাঁদের সম্পর্কে ক্ষমতার অসমতা ছিল। টাজ তাঁকে সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করতেন। তিনি আরো বলেন, সম্পর্ক থাকা অবস্থায় তাঁকে বুলিং, ভয় দেখানো, হয়রানি করা হয়েছে। কাজের সময় এ ধরনের আচরণের কারণে তিনি নিজের সক্ষমতার ওপর থেকে আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলেছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমি কখনো ভাবতে পারিনি আমি আবার চাকরি পাব। আমি খুবই ভেঙে পড়েছিলাম এবং প্রতিদিন কান্না করতাম। ’

তবে এ অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন টাজ। এ বিষয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন জানান, তদন্ত চলাকালে টাজ তাঁর দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াবেন। মরিসন বলেন, অভিযোগের যে মাত্রা, তাতে তদন্তের স্বার্থে অ্যালানের সাময়িকভাবে পদত্যাগ করা উচিত। আইন প্রণেতাদের মরিসন বলেন, অভিযোগের বিষয়টি ন্যায্যভাবে ও দ্রুততার সঙ্গে সমাধান হওয়া গুরুত্বপূর্ণ। সূত্র : বিবিসি।



সাতদিনের সেরা