kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ মাঘ ১৪২৮। ২৭ জানুয়ারি ২০২২। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

তাইওয়ান প্রণালির কাছে চীনের সামরিক মহড়া

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চীনের সামরিক বাহিনী তাইওয়ান প্রণালির কাছে নৌ ও বিমানবাহিনীর ‘যুদ্ধ প্রস্তুতিমূলক টহলের’ মহড়া চালিয়েছে। তাইওয়ানে একদল মার্কিন আইনপ্রণেতার আলোচিত সফরের পর এ মহড়া পরিচালিত হলো। চীনের সশস্ত্র বাহিনীর একজন মুখপাত্র গতকাল শনিবার এ খবর দিয়েছেন।

গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে শাসিত তাইওয়ানের ভবিষ্যৎ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে সম্প্রতি উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এমন প্রেক্ষাপটে তাইওয়ানি কর্তৃপক্ষের প্রতি সমর্থন জানানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের একদল আইনপ্রণেতা এক সফরে বৃহস্পতিবার দ্বীপটিতে পৌঁছান। চীনের পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ডের মুখপাত্র এক বিবৃতিতে জানান, এর প্রতিক্রিয়ায় চীনা বাহিনী শুক্রবার তাইওয়ান প্রণালি অভিমুখে নৌ ও বিমানবাহিনীর যুদ্ধ প্রস্তুতিমূলক টহলের মহড়া চালিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘তাইওয়ান প্রণালিতে বিদ্যমান পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে এটা করা দরকার ছিল। ...সেনাবাহিনী দেশের সার্বভৌমত্ব ও ভূখণ্ডগত অখণ্ডতা রক্ষা করবে। ’

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ‘সেনাবাহিনীর সতর্কতা অব্যাহত থাকবে এবং যেকোনো সময় বাইরের শক্তির হস্তক্ষেপ এবং তথাকথিত তাইওয়ানি স্বাধীনতার লক্ষ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের তৎপরতা মোকাবেলার জন্য সব প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। ’

মহড়ার বিষয়ে আর বিশদ কিছু বলা হয়নি।

শুক্রবার চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাইওয়ানে মার্কিন আইনপ্রণেতাদের সফরের বিষয়ে ‘জোর বিরোধিতা’ ব্যক্ত করে। নভেম্বর মাসে এটি তাইওয়ানে মার্কিন কংগ্রেস সদস্যদের দ্বিতীয় সফর।

চীন স্বশাসিত তাইওয়ানকে তার বিদ্রোহী প্রদেশ মনে করে এবং অনেক দিন ধরে বলে আসছে যে প্রয়োজনে শক্তি প্রয়োগ করে হলেও তাকে নিজের অধিকারে নিয়ে আসবে। চীনে সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবের পর জাতীয়তাবাদী নেতারা মূল ভূখণ্ড ছেড়ে তাইওয়ানে অবস্থান নিয়েছিলেন। তখন থেকে দ্বীপটি চীনের চেয়ে ভিন্ন রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক পদ্ধতিতে পরিচালিত হয়ে আসছে।

সূত্র : এএফপি।



সাতদিনের সেরা