kalerkantho

বুধবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ১ ডিসেম্বর ২০২১। ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

করোনা মহামারি

জার্মানিতে আক্রান্ত ও মৃত্যুর রেকর্ড

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জার্মানিতে কভিডে রেকর্ডসংখ্যক মানুষের আক্রান্ত হওয়া ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্য দিয়ে দেশটিতে গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মোট মৃত্যুর সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়েছে।

নতুন সরকার দায়িত্ব নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে—এমন সময় জার্মানিতে করোনা সংক্রমণের নতুন এই ঢেউ এসেছে। কিছুদিন আগেও দেশটির মহামারি পরিস্থিতি অন্যান্য ইউরোপীয় দেশের তুলনায় ভালো ছিল। তবে সম্প্রতি পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাচ্ছে। হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) শয্যাগুলো খালি থাকছে না।

ইউরোপের বৃহত্তম অর্থনীতির এই দেশটিতে গতকাল পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ৩৫১ জন কভিড রোগীর মৃত্যু হয়েছে। মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে তখন পর্যন্ত সরকারি হিসাবে মৃতের সংখ্যা এক লাখ ১১৯। সরকারি স্বাস্থ্য সংস্থা রবার্ট কোচ ইনস্টিটিউট একে ‘ভয়াবহ মাইলফলক’ বলে উল্লেখ করেছে।

রবার্ট কোচ ইনস্টিটিউটের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বর্তমানে সাপ্তাহিক আক্রান্তের হার প্রতি এক লাখে ৪১৯.৭, যা এযাবৎকালের মধ্যে সর্বোচ্চ।

আগামী মাসে অ্যাঙ্গেলা মার্কেলের বিদায়ি মন্ত্রিসভার কাছ থেকে দায়িত্ব গ্রহণের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে নতুন বাম-নেতৃত্বাধীন জোট। দেশটির ক্রমবর্ধমান এই স্বাস্থ্য সংকট নতুন ওই সরকারের জন্য উপস্থিত চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে।

সরকারি তথ্য বিশ্লেষণ করে তৈরি করা বার্তা সংস্থা এএফপির পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ইউরোপে ১৫ লাখের বেশি মানুষ মারা গেছে। ইউরোপের ৫২টি দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ১০৫। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, মৃতের প্রকৃত সংখ্যা সরকারি হিসাবের দ্বিগুণ থেকে তিন গুণ। কারণ মোটের ওপর মৃত্যু বেড়েছে, যার সঙ্গে কভিডের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ যোগসূত্র রয়েছে।

এদিকে কানাডা গত বুধবার থেকে পাঁচ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের টিকা দিতে শুরু করেছে। এর আগে ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্র ওই বয়সী শিশুদের টিকা দেওয়া শুরু করে। সূত্র : এএফপি।



সাতদিনের সেরা