kalerkantho

রবিবার । ৯ মাঘ ১৪২৮। ২৩ জানুয়ারি ২০২২। ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

মানুষবিহীন সমরাস্ত্র নির্মাণে আমিরাত-ইসরায়েল চুক্তি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মানুষবিহীন সমরাস্ত্র নির্মাণে আমিরাত-ইসরায়েল চুক্তি

সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইসরায়েলের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন অস্ত্র নির্মাতা প্রতিষ্ঠান দুবাইয়ে একটি কৌশলগত চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। চুক্তি অনুযায়ী তারা যৌথভাবে মানুষবিহীন ডুবোজাহাজবিধ্বংসী জাহাজের নকশা তৈরি করবে। ওই জাহাজ একই সঙ্গে সামরিক ও বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহার করা যাবে।

দুবাই এয়ার শোয়ের শেষ দিনে গতকাল বৃহস্পতিবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রতিরক্ষা সংস্থাভুক্ত প্রতিষ্ঠান ইডিজিই ও ইসরায়েল অ্যারোস্পেস ইন্ডাস্ট্রিজ (আইএআই) অস্ত্র নির্মাণে চুক্তির ঘোষণা দেয়।

বিজ্ঞাপন

এক যৌথ বিবৃতিতে সংস্থাগুলো বলেছে, তারা মানুষবিহীন উন্নত ‘১৭০ এম’ মডিউলার জাহাজের নকশা করবে, যা সামরিক ও বাণিজ্যিক উভয় উদ্দেশ্যেই ব্যবহারযোগ্য হবে।

ইসরায়েল এরোস্পেস ইন্ডাস্ট্রিজ গত মার্চে বলেছিল, তারা ইডিজিইর সঙ্গে যৌথভাবে একটি উন্নত ড্রোন প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা তৈরি করবে।

গত বছর যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় একটি চুক্তির আওতায় সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইসরায়েলের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হয়। এরপর দেশ দুটি যৌথভাবে সমরাস্ত্র তৈরির এ ঘোষণা দিল। ওই মধ্যস্থতার পর যুক্তরাষ্ট্র আরব আমিরাতের কাছে অত্যাধুনিক এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান বিক্রি করতেও রাজি হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের পরোক্ষ মধ্যস্থতায় গত বছর সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে। কেবল ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া ও ফিলিস্তিনের দখল করা এলাকা ছেড়ে দেওয়ার বিনিময়েই ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক হতে পারে—দীর্ঘদিন এ অবস্থান ধরে রেখেছিল আরব দেশগুলো। ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তি আরব দেশগুলোর ওই অবস্থানকে দুর্বল করেছে বলে মনে করে ফিলিস্তিনিরা।

আমিরাত ও ইসরায়েলের নির্মিতব্য মানুষবিহীন জাহাজগুলো আধা এবং সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরিচালনা করতে সক্ষম হবে। পাশাপাশি শত্রুর ডুবোজাহাজ শনাক্তকরণ ও তার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করাসহ বিভিন্ন অভিযান চালাতেও সক্ষম হবে।

ইডিজিইর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ফয়সাল আল বান্নাই এক বিবৃতিতে বলেন, ‘এ বিষয়টি আমাদের জন্য স্থানীয় ও বৈশ্বিক বাজারে সামরিক ও বাণিজ্যিক উভয় ক্ষেত্রেই অনেক দরজা খুলে দেবে। ’ সূত্র : আলজাজিরা।



সাতদিনের সেরা