kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ মাঘ ১৪২৮। ২৮ জানুয়ারি ২০২২। ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

উত্তর প্রদেশে কৃষক বিক্ষোভে সহিংসতায় নিহত ৯

লখিমপুর খেরিতে যাওয়ার পথে আটক প্রিয়াংকা পরে মুক্ত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৫ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



উত্তর প্রদেশে কৃষক বিক্ষোভে সহিংসতায় নিহত ৯

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রের বহরের একটি গাড়ির চাপায় উত্তর প্রদেশে চার কৃষকের মৃত্যুর ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। গত রবিবার ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) শাসিত উত্তর প্রদেশের লখিমপুর খেরি জেলায় ওই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় এক সাংবাদিকসহ আরো পাঁচজনের মৃত্যু হয়।

এদিকে লখিমপুর খেরিতে যাওয়ার পথে কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াংকা গান্ধীকে আটক করা হলেও পরে ছেড়ে দেওয়া হয়। আরো দুই নেতাকে আটক করেছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

বিক্ষুব্ধ কৃষকদের অভিযোগ, প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আকাশ মিশ্র আন্দোলনরত কৃষকদের ওপর গাড়ি তুলে দিয়ে কৃষকদের হত্যা করেছেন। অন্যদিকে বিজেপি ও অজয় মিশ্রের দাবি, ঘটনার সময় তাঁর ছেলে আকাশ গাড়িতে ছিলেন না।

চার কৃষক গাড়িচাপায় নিহত হলে আন্দোলনরতদের রোষের মুখে ওই গাড়িতে থাকা চারজন নিহত হন। এ ছাড়া রবিবারের ঘটনার সময় আহত এক সাংবাদিক চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল সোমবার মার যান।

ভারতের বিতর্কিত কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে গত বছর নভেম্বর থেকে রাজধানী দিল্লির আশপাশে বিক্ষোভ করে আসছেন বিভিন্ন রাজ্যের কৃষকরা। ওই বিক্ষোভের অংশ হিসেবে অজয় মিশ্র ও উত্তর প্রদেশের উপমুখ্যমন্ত্রী কেশবপ্রকাশ মৌর্যের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাতে গত রবিবার লখিমপুর খেরিতে সমবেত হন কৃষকরা। ওই দুই নেতা উত্তর প্রদেশের একটি গ্রামে যাওয়ার পথে কৃষকরা এ বিক্ষোভ দেখান। তখনই কৃষকদের চাপা দেয় দুই নেতার বহরে থাকা একটি গাড়ি।

ঘটনার পর থেকে কৃষকদের বিক্ষোভ জোরদার হওয়ার পাশাপাশি বিজেপিবিরোধী দলগুলো সোচ্চার রয়েছে। লখিমপুর খেরি এলাকায় বিরোধী দলের নেতাদের প্রবেশ ঠেকাতে তৎপর উত্তর প্রদেশের পুলিশ। রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবকে গতকাল গ্রেপ্তার করা হয়। কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াংকাকে গত রবিবার আটক করা হলেও গতকাল সকালে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এ ছাড়া পাঞ্জাব কংগ্রেসের নেতা নভোজিৎ সিং সিধুকে চণ্ডীগড় পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। উত্তর প্রদেশের রাজধানী লখনউতে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।  

কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হচ্ছে, ধস্তাধস্তির সময় পুলিশ প্রিয়াংকাকে নিগ্রহ করেছে। এ সময় বিজেপি সরকারকে কটাক্ষ করে প্রিয়াংকা বলেন, ‘এরা কি রকম জাতীয়তাবাদী সরকার যে, কৃষকদের মেরে ফেলার নিয়ম বানায়। ’

মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সরকার গতকাল নিহত চার কৃষকের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। রাজ্য সরকার জানিয়েছে, নিহতদের পরিবারকে ৪৫ লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। এ ছাড়া নিহতদের পরিবার থেকে একজনকে চাকরি দেওয়া হবে। তা ছাড়া আহতদের চিকিৎসার জন্য ১০ লাখ রুপি দেওয়া হবে। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা, টাইমস অব ইন্ডিয়া।



সাতদিনের সেরা