kalerkantho

বুধবার । ৪ কার্তিক ১৪২৮। ২০ অক্টোবর ২০২১। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ছে প্রাণহানি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ছে প্রাণহানি

যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে করোনা পরিস্থিতি আবারও অবনতির দিকে যাচ্ছে। গত মার্চের পর এই প্রথম মার্কিন মুলুকে দিনে গড়ে এক হাজার ৯০০ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। আর যুক্তরাজ্যে মোট মৃত্যু সংখ্যা এক লাখ ৬০ হাজার ছাড়িয়েছে।

বার্তা সংস্থা এপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিদিন সোয়া লাখের মতো কভিড রোগী শনাক্ত হচ্ছে। হাসপাতালগুলোতে এখন চাপ তৈরি হয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্পষ্টতই আক্রান্তদের অধিকাংশই টিকা না নেওয়া বা না পাওয়া ব্যক্তি।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের ৬৪ শতাংশ বাসিন্দা অন্তত এক ডোজ টিকা পেয়েছে। দুই সপ্তাহ ধরে দৈনিক গড় মৃত্যু ৪০ শতাংশ। আগে যেখানে দিনে গড়ে এক হাজার ৩৮৭ জনের মৃত্যু হতো, সেখানে এখন এই সংখ্যা এক হাজার ৯৪৭-এ ঠেকেছে।

যুক্তরাজ্যে গত শুক্রবার প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২৮ দিন ধরে সেখানে প্রতি ২৪ ঘণ্টায় গড়ে ৩৫ হাজার ৬২৩ জন আক্রান্ত হয়েছে; মৃত্যু হয়েছে ১৮০ জনের। দেশটির পরিসংখ্যান দপ্তর জানিয়েছে, এর মধ্যে এক লাখ ৬০ হাজার মৃত্যুর তথ্য নথিবদ্ধ হয়েছে। যদিও দেশটি টিকাদান কর্মসূচিতে বেশ সাফল্য দেখিয়েছে। সেখানে মোট ৯ কোটি ৩৩ লাখেরও বেশি টিকার ডোজ প্রয়োগ করা হয়েছে।

ভারতে আক্রান্ত বেশি কেরালায়

ভারতের রাজ্যে রাজ্যে দৈনিক করোনা সংক্রমণের পরিসংখ্যান অনেকটা একই রকম আছে। এখনো সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে কেরালায়। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ১৮ হাজার। মহারাষ্ট্রে এই সংখ্যা তিন হাজারের নিচে। কর্ণাটকেও গত কয়েক দিন ধরে হাজারের নিচে থাকছে দৈনিক সংক্রমণ। তবে তামিলনাড়ুতে রোজই দেড় হাজার ছাড়াচ্ছে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। সব মিলিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ২৯ হাজার ৬১৬ জন, যা আগের দিনের তুলনায় ৫.৬ শতাংশ কম।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুসারে, মোট আক্রান্ত সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন কোটি ৩৬ লাখ ২৪ হাজার ৪১৯ জনে। সর্বশেষ হিসাবে আক্রান্ত কমার পাশাপাশি কমেছে মৃত্যু সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ২৯০ জনের। তাতে মোট প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার লাখ ৪৬ হাজার ৬৫৮ জনে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় রেকর্ড শনাক্ত

করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে প্রথমবারের মতো দক্ষিণ কোরিয়ায় এক দিনে শনাক্ত তিন হাজার ছাড়িয়েছে। তিন দিনের ছুটি শেষে করোনা শনাক্তের এই নতুন রেকর্ড তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থা কেডিসিএ (কোরিয়া ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন এজেন্সি)।

কেডিসিএ জানিয়েছে, গত শুক্রবার দেশটিতে তিন হাজার ২৭৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এটিই এক দিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত। এর আগের দিন শনাক্ত হয় দুই হাজার ৪৩১ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল দুই লাখ ৯৮ হাজার ৪০২ জনে।

গত বছরের জানুয়ারিতে দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রথম করোনা শনাক্ত হয়। দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ২৪১ জনের। মৃত্যুহার ০.৮২ শতাংশ। কেডিসিএর তথ্য অনুযায়ী, দেশটির মোট জনগোষ্ঠীর ৭৩.৫ শতাংশ করোনা টিকার অন্তত একটি ডোজ নিয়েছেন। এ ছাড়া টিকার দুই ডোজ নিয়েছেন প্রায় ৪৫ শতাংশ মানুষ। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।



সাতদিনের সেরা