kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

কোয়াডও চাঙ্গা হচ্ছে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কোয়াডও চাঙ্গা হচ্ছে

আফগানিস্তান থেকে সরে এলেও এশিয়ায় খুঁটি শক্ত রাখতে ভীষণ তৎপর জো বাইডেন কোয়াড সদস্যদের সঙ্গে সরাসরি আলোচনার আয়োজন করেছেন। কোয়াড্রিল্যাটারাল সিকিউরিটি ডায়ালগ তথা ‘কোয়াড’ শীর্ষক এই অনানুষ্ঠানিক জোটের নেতাদের সঙ্গে সশরীরে এটাই তাঁর প্রথম বৈঠক।  চীনকে ঠেকানোর বিষয়টি সরাসরি উল্লেখ না করলেও হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, ‘ইন্দো প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলকে অবাধ ও উন্মুক্ত’ করার বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।

নানা ইস্যুতে চীনের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়া অস্ট্রেলিয়াকে নিয়ে ‘অকাস’ শীর্ষক প্রতিরক্ষা জোট গঠনের ঘোষণা আসে গত ১৫ সেপ্টেম্বর। চীনের ক্রমবর্ধমান আধিপত্য ঠেকাতেই নতুন এ সামরিক জোট গঠন করা হয়েছে বলে পর্যবেক্ষকদের অভিমত। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার এই জোট ঘোষণার পর গতকাল শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগাকে হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণ জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন।

কোয়াড নেতাদের বৈঠকের প্রেক্ষাপট ব্যাখ্যা করতে গিয়ে সিএনএনের গতকালের প্রতিবেদনে বলা হয়, চীনের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শি চিনপিংয়ের শাসনামলের শুরুতে দেশটির সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়নের নীতি গ্রহণ করে জাপান সরকার। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দক্ষিণ চীন সাগরসহ গোটা অঞ্চলে চীনের তৎপরতা জাপানের দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে দেয়। মহামারিকালে অস্ট্রেলিয়া করোনাভাইরাসের উৎস সন্ধানে স্বাধীন তদন্তের দাবি তুললে চীনের সঙ্গে তাদের সম্পর্কও বিষিয়ে ওঠে। এর মধ্যে ভারতের সঙ্গে চীনের সীমান্তবিরোধ চরমে ওঠে। গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে লাদাখ সীমান্তে দুই দেশের সেনা সদস্যদের লড়াইয়ে ভারতের ২০ জন নিহত হলে সম্পর্কের মারাত্মক অবনতি হয়। এমন একটি পরিস্থিতিতে ওই তিন দেশের নেতাদের নিয়ে বৈঠকের আয়োজন করেন বাইডেন।

অস্ট্রেলিয়ান স্ট্র্যাটেজিক পলিসি ইনস্টিটিউটের ঊর্ধ্বতন বিশ্লেষক ম্যালকম ডেভিসের মতে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশের আমলে কোয়াডের শুরুর দিকে জোটের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সংশ্লিষ্টতা ছিল অত্যন্ত কম। সেই পর্যায় থেকে এশীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে উল্লেখযোগ্য খেলোয়াড়ের ভূমিকায় উঠে এসেছে কোয়াড। তবে এটুকুই যথেষ্ট নয়। চীনকে ঠেকাতে হলে এ অঞ্চলে ইতিবাচক ও অংশগ্রহণমূলক ঐকমত্যে পৌঁছতে হবে যুক্তরাষ্ট্রকে—এমন মন্তব্য করেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। অকাস গঠনের পর তিনি এ ব্যাপারে আরো বলেন, এই অঞ্চলকে জয় করতে হলে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সর্বাধিক প্রাধান্য দিতে হবে। এরপরই রাখতে হবে বৃহত্তর পরিসরে অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করার বিষয়। সূত্র : সিএনএন।



সাতদিনের সেরা