kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩ কার্তিক ১৪২৮। ১৯ অক্টোবর ২০২১। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বিদেশে আর কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্প করব না

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিদেশে আর কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্প করব না

বিদেশে আর কয়লাভিত্তিক বিদ্যুেকন্দ্র স্থাপন করবে না চীন। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে এই প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিং।

চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের (বিআরআই) অধীনে বিভিন্ন দেশে নির্মাণাধীন অবকাঠামোর মধ্যে রয়েছে সড়ক, বন্দর ও কয়লাভিত্তিক বিদ্যুেকন্দ্র। বিআরআইয়ের অধীনে ভিয়েতনাম ও ইন্দোনেশিয়ায় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুেকন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে। একই সঙ্গে প্যারিস জলবায়ুচুক্তি অনুসারে গ্রিনহাউস গ্যাস নিঃসরণ হ্রাসের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে চীনের ওপর চাপ অব্যাহত রেখেছে সংশ্লিষ্ট দেশ ও গোষ্ঠীগুলো। কারণ বিশ্বে সবচেয়ে বেশি গ্রিনহাউস গ্যাস নিঃসরণকারী দেশগুলোর একটি হলো চীন। এ ছাড়া কয়লাভিত্তিক বিদ্যুেকন্দ্রের ওপর চীনের নির্ভরশীলতা তুলনামূলক অনেক বেশি। এ অবস্থায় জাতিসংঘের চলতি অধিবেশনে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুেকন্দ্র প্রসঙ্গে নতুন প্রতিশ্রুতি দিলেন চিনপিং।

জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে পাঠানো ভিডিও বার্তায় চীনের প্রেসিডেন্ট বলেন, নবায়নযোগ্য জ্বালানি ও কার্বন নিঃসরণ কম হয়, এমন বিদ্যুেকন্দ্র তৈরিতে উন্নয়শীল দেশগুলোকে অর্থ সাহায্য করবে চীন। চীনের বাইরে অন্য কোনো দেশে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুেকন্দ্র নির্মাণে অর্থায়ন করবে না তাঁর দেশ।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে চিনপিংয়ের দেওয়া এ প্রতিশ্রুতিকে বৈশ্বিক কার্বন নিঃসরণ হ্রাসের ক্ষেত্রে যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসেবে দেখছেন পর্যবেক্ষকরা। তাঁদের ধারণা, উন্নয়নশীল দেশগুলোয় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুেকন্দ্র তৈরিতে চীন যেসব উদ্যোগ নিয়েছিল, এবার সেগুলোয় রাশ টানা হবে।

গত বছর চীন জানিয়েছিল, ২০৩০ সালের আগেই তাদের কার্বন নিঃসরণের মাত্রা চূড়ায় উঠবে, তবে এরপর ধীরে ধীরে ২০৬০ সালের মধ্যে কার্বন নিরপেক্ষ দেশে পরিণত হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। চিনপিং তাঁর ভাষণে ওই প্রতিশ্রুতির কথাও উল্লেখ করেন।

এদিকে চীনের বাইরে আর কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প না করার যে প্রতিশ্রুতি চিনপিং দিয়েছেন, সেটাকে স্বাগত জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের জলবায়ুবিষয়ক দূত জন কেরি। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট শি যে গুরুত্বপূর্ণ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তা শুনে আমি অত্যন্ত আনন্দিত।’

আগামী মাসে স্কটল্যান্ডে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে অনুষ্ঠেয় কপ২৬ সম্মেলনের প্রেসিডেন্ট অলোক শর্মাও চীনের রাষ্ট্রপ্রধানের প্রতিশ্রুতিতে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। এক টুইটে তিনি বলেন, ‘কয়লা বিদ্যুতের ভাগ্যলিপি যে দেয়ালে লেখা হয়ে গেছে, তা স্পষ্ট। প্রেসিডেন্ট শি দেশের বাইরে নতুন কয়লা প্রকল্প না করার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তাকে স্বাগত জানাই আমি। আমার চীন সফরে যেসব বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে, তার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ এ বিষয়টিও ছিল।’ সূত্র : বিবিসি।



সাতদিনের সেরা