kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বৈশ্বিক বিভক্তি এড়াতে আলোচনায় বসুন

জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে গুতেরেস

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বৈশ্বিক বিভক্তি এড়াতে আলোচনায় বসুন

দুই বিশ্বশক্তির মধ্যকার বিভক্তি যে সংকট ডেকে আনতে চলেছে, সেটা অনুমান করা এত সহজ হবে না। আর তাই সেই সংকট কাটাতে আগেভাগে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বার্ষিক অধিবেশনের উদ্বোধনী ভাষণে গতকাল মঙ্গলবার চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতামূলক সম্পর্কের ওপর গুরুত্ব দেন।

গুতেরেস বলেন, ‘আমি ভয় পাচ্ছি, আমাদের বিশ্ব ক্রমেই দুই রকম অর্থনৈতিক, বাণিজ্যিক ও প্রযুক্তিগত নীতিতে বিভক্ত হয়ে যাচ্ছে; কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার উন্নয়নে দুটি সম্পূর্ণ আলাদা ধারায় বিভক্ত হয়ে যাচ্ছে এবং সম্পূর্ণ ভিন্নধর্মী দুটি সামরিক ও ভূ-রাজনৈতিক ব্যবস্থার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এর ফলে সংকট ঘনিয়ে আসছে। স্নায়ুযুদ্ধের মতো ততটা আভাস কিন্তু এবার পাওয়া যাবে না। আস্থা পুনরুদ্ধার করতে এবং আশা জাগাতে আমাদের সহযোগিতামূলক সম্পর্ক প্রয়োজন।’

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের এ সভায় অংশ নিয়ে এই প্রথম বিশ্ববাসীর উদ্দেশে বক্তব্য দানকালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন অবশ্য বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র মোটেই স্নায়ুযুদ্ধ চায় না। সব সময় চীনকে একবিংশ শতাব্দীর ক্রমবর্ধমান স্বৈরচারী আখ্যা দিয়ে আসা বাইডেন বলেন, ‘সমস্যা মোকাবেলায় এগিয়ে আসা এবং শান্তিপূর্ণ সমাধানে আগ্রহী যেকোনো দেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র কাজ করতে প্রস্তুত। সেই দেশের সঙ্গে আমাদের তীব্র মতানৈক্য থাকলেও আমরা প্রস্তুত।’

সভায় চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিংও বক্তব্য দেবেন। তবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সভায় অংশ নিচ্ছেন তিনি।

এদিকে সাধারণ অধিবেশনে জার্মানির বক্তব্য আসার আগে অকাস ইস্যুতে দেশটির অবস্থান স্পষ্ট করেছেন জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেইকো মাস। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার নতুন জোট গঠনের পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানানো ফ্রান্সের পক্ষে অবস্থান নিয়ে তিনি বলেন, ‘ফরাসি বন্ধুদের ক্ষোভটা আমরা বুঝতে পারছি। যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এবং যেভাবে নেওয়া হয়েছে, সেটা বিরক্তির ও হতাশাজনক। কথাটা শুধু ফ্রান্সের জন্য প্রযোজ্য, তেমনটা নয়।’

সূত্র : এএফপি।



সাতদিনের সেরা