kalerkantho

বুধবার । ৪ কার্তিক ১৪২৮। ২০ অক্টোবর ২০২১। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখছে পুতিনের দলই

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দলই নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখতে যাচ্ছে। গতকাল রবিবার শেষ হয়েছে রাশিয়ার তিন দিন ধরে চলা নির্বাচন। ক্রেমলিন সমালোচকদের বেশির ভাগকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে না দেওয়ায় পুতিনের দলই সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাচ্ছে।

এ বছরই পুতিনের কট্টর সামলোচক আলেক্সাই নাভালনিকে কারাদণ্ড এবং তাঁর সংগঠনকে চরমপন্থী হিসেবে চিহ্নিত করে নিষিদ্ধ করা হয়। নির্বাচনের আগেই নাভালনির শীর্ষ সহযোগীদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার এড়াতে অনেকে দেশ ছাড়েন। পাশাপাশি নাভালনির সংগঠনের সঙ্গে কোনো না কোনোভাবে জড়িত ও ভিন্নমতাবলম্বীরা যেন নির্বাচনে অংশ নিতে না পারে, সেটাও নিশ্চিত করা হয়।

নির্বাচন সম্পর্কে দেশটির ৪৩ বছর বয়সী এক ব্যবসায়ী মন্তব্য করেন, ‘একে আসলে নির্বাচন বলা যায় না। এতে মানুষের জন্য কোনো বিকল্পই রাখা হয়নি।’ নির্বাচন ঘিরে নানা রকম নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয় তো ছিলই, এর সঙ্গে ভোট কারচুপির অভিযোগও উঠেছে।

পার্লামেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয় গত শুক্রবার। এর আগেই অ্যাপল ও গুগল থেকে সরিয়ে ফেলা হয় নাভালনির ‘স্মার্ট ভোটিং অ্যাপ’। এই অ্যাপে ক্রেমলিনে কারা প্রার্থী হয়েছেন এবং কাদের ভোট দেওয়া উচিত, সেই সংক্রান্ত নির্দেশনা দেওয়া হয়। অ্যাপটি সরিয়ে ফেলায় রুশ ভোটারদের অনেকের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। অ্যাপল ও গুগল সূত্র জানায়, রুশ কর্তৃপক্ষ তাদের ওপর চাপ সৃষ্টি করে ওই অ্যাপ সরাতে বাধ্য করেছে। গুগল ও অ্যাপলের পাশাপাশি যোগাযোগের মাধ্যম টেলিগ্রাম থেকেও সরিয়ে নেওয়া হয় নাভালনির ‘স্মার্ট ভোটিং বট’ এবং গুগল ডকস ও ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হয় তাদের তৈরি কনটেন্ট।

এর মধ্যে গতকাল রবিবার জেল থেকেই নাভালনি তাঁর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে বলেন, ‘আজই সেই দিন যখন আপনার কণ্ঠস্বর সত্যিই গুরুত্বপূর্ণ।’

এদিকে রাশিয়ার নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গতকাল রবিবার সকাল পর্যন্ত ৩৫ শতাংশ মানুষ ভোট দিয়েছে। গতকাল স্থানীয় সময় রাত ৮টায় ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার কথা। দেশটির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড রাশিয়া তার দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা বজায় রাখবে বলে ধারণা করছেন পর্যবেক্ষকরা। এটি হলে নিজের ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করতে পুতিন বিনা বাধায় আইনগত পরিবর্তন আনার সুযোগ পাবেন। সূত্র : এএফপি।



সাতদিনের সেরা