kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

ডেল্টায় সংক্রমণ বাড়লেও লকডাউনে যুক্তরাষ্ট্রের ‘না’

ভারতে সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ এই মাসেই : গবেষণা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ডেল্টায় সংক্রমণ বাড়লেও লকডাউনে যুক্তরাষ্ট্রের ‘না’

করোনার অতি সংক্রামক ডেল্টা ধরনের কারণে সংক্রমণ বাড়লেও যুক্তরাষ্ট্র লকডাউনে ফিরে যাবে না। গত রবিবার দেশটির শীর্ষ বিজ্ঞানী অ্যান্টনি ফাউচি এ কথা বলেছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের এই উপদেষ্টা মনে করছেন, যথেষ্ট লোককে টিকা দেওয়ায় গত শীতের মতো এবার সেখানে তীব্র সংক্রমণের ঘটনা ঘটবে না।

ডেল্টার সংক্রমণ বাড়ায় প্রেসিডেন্ট বাইডেন চলতি সপ্তাহে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সম্ভবত কিছু বিধি-নিষেধ আরোপ করতে যাচ্ছে, কিন্তু এবিসির ‘দিস উইক’কে ফাউচি বলেছেছেন, ‘আমি মনে করছি না যে আমরা আবারও লকডাউনে যাচ্ছি।’

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র (সিডিসি) তাদের আগের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে চলতি সপ্তাহে বলেছে, যারা টিকার পুরো ডোজ গ্রহণ করেছে তাদের উচ্চঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় ঘরের ভেতরেও মাস্ক পরতে হবে।

তবে মাস্কের এ পরিবর্তিত নীতির কারণে টিকা নিয়ে আস্থার সংকট তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। তবে ফাউচি নিজের অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করে বলেছেন, ‘টিকা নেওয়া লোকজনের করোনার ঝুঁকি কম। তবে সংক্রমিত হলেও তাদের মৃত্যু কিংবা হাসপাতালে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি হবে না। টিকা যারা  নেয়নি তাদের মধ্যেই আমরা সংক্রমণ ছড়াতে দেখছি।’

এদিকে তীব্র সংক্রামক ডেল্টা ধরনের কারণে চীন, অস্ট্রেলিয়াসহ বিশ্বের অনেক দেশই নতুন করে লকডাউন জারি করেছে। অবশ্য এসব দেশ লকডাউনের পাশাশাশি গণপরীক্ষায় জোর দিয়েছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের নানজিং বিমানবন্দর থেকে ছড়িয়ে পড়া ডেল্টা সংক্রমণ মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। এরই মধ্যে দেশটির ১৫টি প্রদেশ ও পৌরসভায় তিন শতাধিক মানুষের শরীরে ভাইরাসটির অস্তিত্ব ধরা পড়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সরকার ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি লাখ লাখ মানুষের নমুনা পরীক্ষায় জোর দিয়েছে। এরই মধ্যে নানজিং নগরীর সব বাসিন্দার নমুনা পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

এএফপির প্রতিবেদন জানাচ্ছে, চীনের উহানের করোনা প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণের পর সবচেয়ে খারাপ সময় পার করছে দেশটি। দেশটির জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, গত রবিবার স্থানীয়ভাবে সংক্রমিত ৫৫ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এই দিন পর্যন্ত চীনের মূল ভূ-ভাগে ১৬৬ কোটি ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে সর্বোচ্চ ৩৭ হাজার ১৮৯ জন নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে গত সোমবার। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তাতে করে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯ লাখ ৪০ হাজার ৭০৮ জনে। বর্তমানে দেশটিতে সংক্রমণের পঞ্চম ঢেউ চলছে।

‘ভারতে তৃতীয় ঢেউ আগস্টেই’

চলতি বছরেই ভারতে করোনার তৃতীয় ঢেউ আসতে পারে বলে জানিয়েছিলেন বিশেষজ্ঞরা। এবার আইআইটির একটি গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, আগস্টেই ভারতে শুরু হতে পারে করোনার তৃতীয় ঢেউ। সেই সময় দৈনিক এক থেকে দেড় লাখ মানুষ আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। অক্টোবর মাসে সংক্রমণ শিখর ছুঁতে পারে বলেও বলা হচ্ছে। সূত্র : এএফপি।



সাতদিনের সেরা