kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

সাগরে তেলের ট্যাংকারে হামলা

ইরানকে দুষছে ইসরায়েল

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইরানকে দুষছে ইসরায়েল

আরব সাগরে তেলের ট্যাংকারে হামলার ঘটনায় ইরানকে দায়ী করেছে ইসরায়েল। এ ঘটনায় জাতিসংঘ যাতে ইরানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়, সে জন্য কূটনৈতিক তৎপরতাও শুরু করেছে তারা। তেলের ট্যাংকারে হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাজ্যও। তবে এ ব্যাপারে গতকাল পর্যন্ত ইরানের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

হামলার ঘটনাটি ঘটে গত বৃহস্পতিবার। ‘এমভি মার্কার স্ট্রিট’ নামের ট্যাংকারটি তানজানিয়ার দারুসসালাম থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজাইরাহর দিকে যাচ্ছিল। ঘটনার সময় ট্যাংকারটির অবস্থান ছিল ওমান উপকূলে। হামলায় ট্যাংকারের দুই নাবিক নিহত হন। তাঁদের একজন যুক্তরাজ্যের নাগরিক; আরেকজন রোমানিয়ান। তবে কিভাবে হামলা হয়েছে, তা জানা যায়নি। অনেক গণমাধ্যম ড্রোন হামলার কথা জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত যেসব তথ্য-উপাত্ত পাওয়া গেছে, তাতে ড্রোন হামলার আশঙ্কাই বেশি। ইরানের আল-আলম টেলিভিশন চ্যানেলের এক খবরে বলা হয়েছে, সম্প্রতি সিরিয়ায় ইসরায়েলি হামলার প্রতিশোধ হিসেবেই এই হামলা চালানো হয়েছে। তবে কারা এই হামলা চালিয়েছে, সেই বিষয়ে খবরে কিছু বলা হয়নি।

জাপানি মালিকানাধীন ট্যাংকারটি পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে লন্ডনভিত্তিক কম্পানি ‘জোডিয়াক মেরিটাইম’। প্রতিষ্ঠানটির মালিক ইসরায়েলি ধনকুবের আয়াল ওফার। তিনি গতকাল জানিয়েছেন, সেদিন আসলে কী ঘটেছিল, তা তাঁরা খতিয়ে দেখছেন। কিন্তু ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ এই ঘটনার জন্য ‘ইরানের সন্ত্রাসকে’ দায়ী করেছেন। গত শুক্রবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘ইরান শুধু ইসরায়েলের জন্যই সমস্যা নয়। ইরানের বিরুদ্ধে বিশ্বকে অবশ্যই মুখ খুলতে হবে।’

ইয়ার লাপিদের দাবি, ইরানের বিরুদ্ধে জাতিসংঘকে ব্যবস্থা নিতে হবে। এ জন্য বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে কথা বলতে ইসরায়েলের দূতাবাসগুলোতে নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ব্রিটিশ সরকারের এক মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা প্রকৃত ঘটনা জানার চেষ্টা করছি। তবে যাই ঘটুক, আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী নৌযানকে স্বাধীনভাবে চলতে দেওয়া উচিত।’ ওই মুখপাত্র আরো বলেন, ‘হামলায় নিহত ব্রিটিশ নাগরিককে নিয়েই আমরা এখন বেশি ভাবছি।’ সূত্র : বিবিসি, এএফপি।



সাতদিনের সেরা