kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

হাইতির প্রেসিডেন্টের শেষকৃত্যে সংঘর্ষ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাইতির প্রেসিডেন্টের শেষকৃত্যে সংঘর্ষ

হাইতির প্রেসিডেন্ট জোভেনেল ময়িসের শেষকৃত্যানুষ্ঠানে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য দেশের কূটনীতিকদের উপস্থিতিতেই পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় ময়িস সমর্থকরা। কেপ-হাইতিয়ান শহরে গত শুক্রবার এই শোক অনুষ্ঠান হয়। সংঘর্ষ শুরু হলে বিদেশি কূটনীতিকরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। বিক্ষোভ দমন করতে পুলিশ এ সময় টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে, তবে কেউ হতাহত হয়নি। হাইতির পুলিশ বাহিনী জানিয়েছিল, ময়িস হত্যার মিশনে ২৬ জন কলম্বিয়ার নাগরিকসহ দুই হাইতিয়ান-আমেরিকান জড়িত। কিন্তু বিক্ষোভকারীরা খোদ পুলিশ বাহিনীর দিকেই অভিযোগের তীর ছুড়ছেন। তাঁরা বলছেন, পুলিশ বাহিনীর প্রধান লিওন চার্লস এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। এই সন্দেহ-অবিশ্বাস থেকেই সংঘর্ষের সূত্রপাত। এদিকে ময়িস হত্যাকাণ্ডের পর পুলিশ এরই মধ্যে ২০ জনকে আটক করেছে। পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তিনজন নিহত হয়েছেন, আরো পাঁচজন পলাতক রয়েছেন। শেষকৃত্যে ময়িসের স্ত্রী মার্টিন ও তাঁদের তিন সন্তান উপস্থিত ছিলেন। ময়িস হত্যাকাণ্ডের সময় আহত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসা নিতে গিয়েছিলেন মার্টিন। কয়েক দিন আগে দেশে ফেরেন তিনি। স্বামীর শেষকৃত্যানুষ্ঠানের দিন বিচারের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা প্রতিশোধ নিতে চাই না। আমরা বিচার চাই।’

জোভেনেল ময়িস ২০১৭ সাল থেকে আমৃত্যু হাইতির ক্ষমতায় ছিলেন। তাঁর শাসনামলে বিরোধীরা দুর্নীতিসহ নানা অভিযোগে সরব ছিল। শেষমেশ গত ৭ জুলাই নিজ বাসভবনে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন তিনি।

সূত্র : বিবিসি।