kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

সংক্ষিপ্ত

ভারতে ভারি বর্ষণজনিত মৃত্যু বেড়ে ৭৬

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতে ভারি বর্ষণের পর বন্যা ও দেয়ালধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭৬ জনে পৌঁছেছে। এদিকে ভারি বর্ষণের কারণে উদ্ধারকাজ ব্যাহত হচ্ছে। ভারি বৃষ্টির কারণে ভারতের পশ্চিম উপকূল তলিয়ে গেছে। মুম্বাইয়ে কয়েক ডজন মানুষ নিখোঁজ। সংশ্লিষ্টদের মতে, কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যা দেখছে গোয়ার মানুষ। গোয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিশ্বজিৎ রানে বলেন, বন্যায় মানুষ সবই হারিয়ে ফেলেছে। গত অর্ধশতাব্দীতে মানুষ এমন বন্যা দেখেনি। তিনি আরো বলেন, প্রায় এক হাজার ঘরবাড়ি খুব বাজেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এদিকে বন্যার পানিও বাড়ছে। গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমদ সাওয়ান্ত কয়েক দশকের সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যা হিসেবে উল্লেখ করেছেন। এ বন্যা ব্যাপক ধ্বংসলীলা চালিয়েছে। অবশ্য এখানে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে মহারাষ্ট্রে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৭৬ হয়েছে। এর মধ্যে অর্ধেকের বেশি মারা গেছে দক্ষিণ মুম্বাইয়ের রাইগাদ জেলায়। সেখানে দেয়ালধসে ৪৭ জন মারা গেছে এবং আশঙ্কা করা হচ্ছে ৫৩ জন এখনো মাটির নিচে চাপা পড়ে আছে। প্রায় ৯০ হাজার জনকে মহারাষ্ট্রের দুর্যোগকবলিত এলাকা থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এদিকে সাবিত্রী নদীর পানি বিপত্সীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যার কারণে কূল ছাপিয়ে পানি এলাকায় প্রবেশ করছে। এ পানিতে মাহাদ শহরে প্রবেশ করা কঠিন হয়ে পড়েছে। রাস্তাঘাট ডুবে যাওয়ায় বাড়ির ছাদ থেকে আটকে পড়াদের উদ্ধার করা হচ্ছে। জাতীয় দুর্যোগ মোকাবেলা বাহিনীর উদ্ধারকারী হেলিকপ্টার আক্রান্ত এলাকায় নামতে পারছে না। তা ছাড়া পাহাড়ি অঞ্চল মহাবালেশ্বরে ৬০ সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। সূত্র : এএফপি।