kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

অ্যামনেস্টির অভিযোগ

পেগাসাসকাণ্ডে সংকটে মানবাধিকার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাংবাদিক, অধিকারকর্মী ও রাষ্ট্রপতির মতো গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির ফোনে পেগাসাস ব্যবহার করে আড়ি পাতার ঘটনায় সংকটে মানবাধিকার—গত শুক্রবার এমন অভিযোগ করে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। বিবৃতিতে তারা বলে, ম্যালওয়্যারটির বিক্রি ও ব্যবহার অবিলম্বে বন্ধ করা উচিত।

এভাবে হেলাফেলা করে কোনো নজরদারি ছাড়াই স্পাইওয়্যারটি ব্যবহারের প্রভাব ধ্বংসাত্মক হতে পারে বলে সতর্ক করেছে অ্যামনেস্টি। তাদের আশঙ্কা, স্পাইওয়্যারটির বাণিজ্য বিশ্বব্যাপী মানবাধিকারের ওপর ভয়াবহ প্রভাব ফেলতে পারে।

অ্যামনেস্টির সেক্রেটারি জেনারেল অ্যাগনেস ক্যালামার্ড বলেন, ‘বেআইনিভাবে এটি শুধু একজনের ক্ষতি করে না, পাশপাশি বৈশ্বিক মানবাধিকারের ওপরও প্রভাব ফেলে। এ ছাড়া ডিজিটাল পরিবেশের নিরাপত্তাকেও হুমকির মুখে ফেলেছে।’ তিনি আরো বলেন, ‘ইসরায়েলি এনএসও গ্রুপ কোনো সাধারণ কম্পানি নয়। এটি একটি বিপজ্জনক ব্যবসা, যা বছরের পর বছর বৈধতার সঙ্গে কম্পানিটি চালিয়ে আসছে। এখনই সময় এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার।’

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল গবেষণা ও আড়ি পাতা হচ্ছে এমন ফোনের তালিকা প্রকাশের জন্য এর মধ্যেই কাজ শুরু করেছে। সংস্থাটি ফ্রান্সের গণমাধ্যম ফরবিডেন স্টোরিসের সঙ্গে একত্রে এ গবেষণা পরিচালনা করবে। তারা এর মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট, গার্ডিয়ান ও ল্যা মন্ডের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ফ্রান্সের স্থানীয় গণমাধ্যম ল্যা মন্ডের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ও ১৪ জন ফরাসি মন্ত্রীর মুঠোফোনে পেগাসাস ব্যবহার করে আড়ি পাতা হচ্ছে। মরক্কো থেকে এ আড়ি পাতার কাজ করা হচ্ছে বলে প্রতিবেদনটিতে জানানো হয়। তবে মরক্কো কর্তৃপক্ষ এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

ফ্রান্সে প্রেসিডেন্ট ছাড়াও বেশ কয়েকটি দেশের নেতাদের ফোনে পেগাসাস ব্যবহার করে আড়ি পাতা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর শিকার বিশ্বনেতাদের মধ্যে রয়েছেন ইরাকের প্রেসিডেন্ট বারাম সালিহ, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা। পাকিস্তান, মিসর ও মরক্কোর বর্তমান প্রেসিডেন্টের নামও ওই তালিকায় রয়েছে। সূত্র : এএফপি।