kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

কানাডায় আদিবাসী স্কুলের কাছে আরো কবর

কালের কণ্ঠ ডেস্ক    

২৫ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কানাডায় সাবেক এক ক্যাথলিক আবাসিক স্কুলের কাছে কয়েক শ কবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। ২১৫ শিশুর গণকবর খুঁজে পাওয়ার মাস না পেরোতেই নতুন করে এসব কবরের সন্ধান মেলায় ফের আলোচনা সৃষ্টি হয়েছে। কানাডার সংবাদমাধ্যমগুলো গত বুধবার নতুন কবর পাওয়ার খবর নিশ্চিত করে। কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়া প্রদেশের কামলুপস এলাকায় গত মাসে একটি পুরনো আদিবাসী স্কুল থেকে ২১৫ জন স্কুল শিক্ষার্থীর দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছিল। এই ঘটনা নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়। এরপর কানাডা সরকারের সহযোগিতায় আরো কয়েকটি পুরনো আদিবাসী স্কুলের আশপাশে খননকাজ শুরু হয়। এর জেরে গতকাল এসব কবরের খোঁজ মিলল। দেশটির সাসকাচেওয়ান প্রদেশের মারিয়েভেল এলাকায় অবস্থিত ওই স্কুলের পাশে খননকাজের মাধ্যমে এসব কবরের খোঁজ মেলে। ক্যাথলিক খ্রিস্টান পরিচালিত স্কুলটি আদিবাসী শিশুদের জন্য তৈরি করা হয়েছিল। ১৮৯৯ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত ওই স্কুলের অস্তিত্ব ছিল। পরে সেটি গুঁড়িয়ে দিয়ে দিবা স্কুল গড়ে তোলা হয়। কানাডার ফার্স্ট নেশন অ্যাসেম্বলির প্রধান পেরি বেল্লিগারদে বলেন, ‘ঘটনাটি মর্মান্তিক, কিন্তু মোটেই আশ্চর্যের কিছু নয়।’ কানাডায় এ ধরনের কবরের সন্ধান পাওয়ার বিষয়টির সঙ্গে ইতিহাসের যোগসূত্র রয়েছে। একসময় রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় আদিবাসীদের জোরপূর্বক খ্রিস্টান ধর্মে দীক্ষিত করার পাশাপাশি শিশুদের মাতৃভাষায় কথা বলতে বাধা দেওয়া হতো। স্কুল প্রতিষ্ঠা করে এই কার্যক্রম পরিচালনা করা হতো। সূত্র : এএফপি।