kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩০ জুলাই ২০২১। ১৯ জিলহজ ১৪৪২

ডেল্টা ধরন ছড়িয়েছে বিশ্বের ৮৫ দেশে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ডেল্টা ধরন ছড়িয়েছে বিশ্বের ৮৫ দেশে

করোনাভাইরাসের টিকা প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা পূরণে শুধু হাসপাতালে বা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নয়, প্রয়োজনে খোলাবাজারে অস্থায়ী কেন্দ্র বসিয়ে টিকা দেওয়ার উদ্যোগও নিয়েছে ভারত সরকার। তেলেঙ্গানা রাজ্যের হায়দরাবাদ শহরের এক বাজার থেকে গতকাল তোলা। ছবি : এএফপি

ভারতে প্রথম শনাক্ত করোনাভাইরাসের অতি সংক্রামক ধরন ডেল্টা বিশ্বের ৮৫টি ছড়িয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও)। জাতিসংঘের এই সংস্থার ধারণা, করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকলে ডেল্টা ধরন আরো ‘শক্তিশালী’ হয়ে উঠবে।

সাপ্তাহিক হালনাগাদ তথ্যে ডাব্লিউএইচও জানাচ্ছে, বিশ্বব্যাপী ১৭০টি দেশ বা অঞ্চলে করোনার আলফা ধরন, ১১৯টি দেশে বিটা ধরন, ৭১টি দেশে গামা ধরন ও ৮৫টি দেশে ডেল্টা ধরন শনাক্ত হয়েছে। গত সপ্তাহে নতুন করে ১১টি দেশে শনাক্ত হয়েছে ডেল্টা ধরন।

ডাব্লিউএইচও বলেছে, বর্তমান চারটি ধরনকে ‘উদ্বেগজনক’ হিসেবে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এগুলো হলো আলফা, বিটা, গামা ও ডেল্টা। তার মধ্যে আলফা ধরনের চেয়েও বেশি সংক্রামক ডেল্টা ধরন। যেভাবে এটি ছড়িয়ে পড়ছে তাতে ভবিষ্যতে এটি ‘শক্তিশালী’ ধরনে পরিণত হতে পারে।

ডেল্টা ধরনের কারণে এরই মধ্যে ফ্রান্স, জার্মানি ও যুক্তরাজ্যে সংক্রমণে উল্লম্ফন ঘটেছে। আলফা, বিটা ও গামা ধরনের ডেল্টার সংক্রমণ ক্ষমতা অনেক বেশি হওয়ায় বিশ্বজুড়ে করোনার ধরনটি নিয়ে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছে।

ভারতে বাড়ল শনাক্ত-মৃত্যু

প্রতিবেশী ভারতে তিন মাস পর সর্বনিম্ন দৈনিক শনাক্ত হওয়ার পর দুই দিন ধরে শনাক্তের সংখ্যা ফের বেড়েছে; পাশাপাশি মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গতকাল সকাল থেকে পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৫৪ হাজার ৬৯ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে আর একই সময় আরো এক  হাজার ৩২১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার দেশটিতে ৪২ হাজার ৬৪০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছিল, যা ৯১ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন ছিল। তার পর থেকে দুই দিন ধরে শনাক্ত নতুন রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

ডেল্টা প্লাসে প্রথম প্রাণহানি

করোনার অতি সংক্রামক ডেল্টা ধরনের নতুন রূপ ডেল্টা প্লাসে ভারতের মধ্য প্রদেশে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এই ধরনটি নিয়ে সতর্কবার্তার মধ্যেই প্রথম প্রাণহানির খবর মিলল।

স্থানীয় প্রশাসন জানায়, গত ২৩ মে এক নারীর মৃত্যু হয়েছিল। পরে জিনোম বিশ্লেষণ করে ডেল্টা প্লাস ধরনে সংক্রমিতের বিষয়টি গত বুধবার ধরা পড়েছে।

ওই নারীর স্বামী আগেই করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি টিকার দুই ডোজ নিয়েছিলেন। আর তাঁর স্ত্রী একটি এক ডোজা টিকা নিয়েছিলেন।

মধ্য প্রদেশের মেডিক্যাল এডুকেশন মন্ত্রী বিশ্বাস সরঙ্গ বলেন, ‘সরকার বিষয়টির ওপর নজর রাখছে। ডেল্টা প্লাস ধরনে আক্রান্ত হওয়া রোগীদের সংস্পর্শে যারা এসেছে তাদের যত দ্রুত সম্ভব খুঁজে বের করে পরীক্ষা করা হবে।’

ব্রাজিল-রাশিয়ায় সংক্রমণে উল্লম্ফন

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে বুধবার রেকর্ড এক লাখ ১৫ হাজার ২২৮ জনের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। এ সময়ে প্রাণহানি হয়েছে দুই হাজার ৩৯২ জনের। এর ফলে দেশটিতে মোট প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়াল পাঁচ লাখ ৭১ হাজারে। মৃত্যুর নিরিখে শীর্ষ দেশ যুক্তরাষ্ট্রের (ছয় লাখ) পরই ব্রাজিলের অবস্থান। এরই মধ্যে সেখানে সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে বলে সরকারের তরফে জানানো হয়েছে।

এদিকে রাশিয়ায়ও সংক্রমণে উল্লম্ফন ঘটেছে। গতকাল দেশটিতে ২০ হাজারের বেশি মানুষের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। তার মধ্যে সাড়ে আট হাজারজনই রাজধানী মস্কোর বাসিন্দা।

সূত্র : পিটিআই, এএফপি।