kalerkantho

শুক্রবার । ৮ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৩ জুলাই ২০২১। ১২ জিলহজ ১৪৪২

বিশ্ব ঐতিহ্যের মর্যাদা হারাচ্ছে গ্রেট ব্যারিয়ার রিফ!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্ব ঐতিহ্যের মর্যাদা হারাচ্ছে গ্রেট ব্যারিয়ার রিফ!

অস্ট্রেলিয়ার গ্রেট ব্যারিয়ার রিফকে হুমকিতে থাকা বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্তির সুপারিশ করেছে ইউনেসকো। জাতিসংঘের এই সংস্থাটি আভাস দিয়েছে, আগামী মাসের বৈঠকে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসতে পারে। যুক্তি হিসেবে তারা বলছে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে গ্রেট ব্যারিয়ার রিফের বৈচিত্র্য হুমকির মুখে পড়েছে।

এই সুপারিশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ইউনেসকোর বিরুদ্ধে বৈষম্যের অভিযোগ তুলেছে অস্ট্রেলিয়া সরকার। তবে ইউনেসকোর সুপারিশকে ‘যথাযথ’ বলে মন্তব্য করেছেন অনেক পরিবেশবিজ্ঞানী। দুই হাজার ৩০০ কিলোমিটারের এই রিফ বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় থাকবে, নাকি হুমকিতে থাকা ঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে, তা নিয়ে প্রায় চার বছর ধরে ইউনেসকো ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে বিরোধ চলছে। ১৯৮১ সালে ইউনেসকোর বিশ্ব ঐহিহ্যের তালিকায় স্থান করে নেয় গ্রেট ব্যারিয়ার রিফ। এটিকে হুমকিতে থাকা বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে প্রথম বিতর্ক শুরু হয় ২০১৭ সালে। এরপর গ্রেট ব্যারিয়ার রিফের উন্নয়নে ২২০ কোটি ডলার বিনিয়োগের প্রতিশ্রুতি দেয় অস্ট্রেলিয়া। এই প্রতিশ্রুতির পরও সেখানকার বৈচিত্র্য দিন দিন নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির ফলে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা দিন দিন বাড়ছে। গ্রেট ব্যারিয়ার রিফের বৈচিত্র্য নষ্ট হওয়ার পেছনে এটাই মূল কারণ। কিন্তু জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় অস্ট্রেলিয়া সরকার কার্যকর পদক্ষেপ নিতে বরাবরই অনীহা দেখিয়ে আসছে। যে কয়েকটি উন্নত দেশ ২০৫০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণের হার শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দেয়নি, তাদের মধ্যে অস্ট্রেলিয়াও আছে। তারা ২০১৫ সালের পর থেকে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে আর কোনো লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেনি। সূত্র : বিবিসি, এএফপি।



সাতদিনের সেরা