kalerkantho

শুক্রবার । ৮ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৩ জুলাই ২০২১। ১২ জিলহজ ১৪৪২

ইসরায়েলের সঙ্গে টিকা চুক্তি বাতিল করল ফিলিস্তিন

প্রায় মেয়াদোত্তীর্ণ টিকার বিনিময়ে ফিলিস্তিনের কাছ থেকে ফাইজারের নতুন টিকা নিতে চেয়েছিল ইসরায়েল

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২০ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইসরায়েলের কাছ থেকে ফাইজার-বায়োএনটেকের কমপক্ষে ১০ লাখ ডোজ কভিড টিকা নেওয়ার যে সিদ্ধান্ত হয়েছিল, তা বাতিল করেছে ফিলিস্তিন। ওই সব টিকার মেয়াদ শেষ হতে আর বেশিদিন বাকি নেই বলে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত পাল্টেছে।

গত শুক্রবার ইসরায়েলের নতুন প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেতের কার্যালয় থেকে একটি টিকা বিনিময় চুক্তির অধীনে ফিলিস্তিনকে ফাইজারের টিকা প্রদানের ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল, ইসরায়েলের এখন আর ওই টিকার দরকার নেই। তাই ফিলিস্তিনের টিকাদান কার্যক্রমের গতি বাড়াতে তারা ওই টিকা দেবে। তবে বিনা শর্তে ওই টিকা দেওয়ার কথা বলেনি ইসরায়েল। ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ ফাইজারের কাছ থেকে টিকার যে চালান পেতে চলেছে, সেখান থেকে একই পরিমাণ টিকার ডোজ ইসরায়েলকে দিতে হবে, সে কথাই বলা হয়েছে টিকা বিনিময় চুক্তিতে।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাই আলকাইলা বলেন, ইসরায়েল যে টিকাগুলো দিতে চেয়েছে, সেগুলোর মেয়াদ আগামী জুলাই অথবা আগস্ট মাসে শেষ হয়ে যাবে বলে তারা জানিয়েছেন। টিকাগুলো কবে নাগাদ পৌঁছানো সম্ভব জানতে চাইলে তারা জুন মাসের কথা বলেন। সে ক্ষেত্রে ওই টিকাগুলো ব্যবহারের জন্য পর্যাপ্ত সময় পাওয়া যাবে না। তাই সেগুলো গ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র ইব্রাহিম মেলহেম এক বিবৃতিতে জানান, ‘টিকার মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ার তারিখ ঘনিয়ে আসায় ফিলিস্তিন সরকার সেগুলো নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। তিনি বলেন, ‘এর বদলে আমরা বরং সরাসরি ফাইজারের কাছে টিকার যে অর্ডার দিয়েছি সেগুলো আসার অপেক্ষা করব।’

ফিলিস্তিনের এমন সিদ্ধান্তের ব্যাপারে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

কভিড টিকার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর সেগুলো আর ব্যবহার না করার সিদ্ধান্তই এখন পর্যন্ত বলবৎ আছে। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) এখনই মেয়াদোত্তীর্ণ টিকা নষ্ট করে না ফেলার পরামর্শ দিয়েছে। সংস্থাটি বলেছে, মেয়াদ পার হয়ে যাওয়ার পরও টিকার কার্যকারিতা থাকে কি না তা নিয়ে বেশ কয়েকটি গবেষণা চলছে। ফাইজারের কয়েক লাখ ডোজ টিকা পাওয়ার পরই ইসরায়েল সরকার দেশটির প্রায় ৫৫ শতাংশ মানুষকে দুই ডোজ টিকা দেওয়ার কাজ শেষ করেছে। অন্যদিকে অধিকৃত পশ্চিম তীর ও গাজায় মাত্র এক ডোজ টিকা পেয়েছে ৩০ শতাংশ ফিলিস্তিনি। সূত্র: বিবিসি।



সাতদিনের সেরা